kalerkantho


নীলফামারীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৯:৪৭



নীলফামারীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড

শীতে কাঁপছে দেশ। চলমান শৈত্যপ্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। আর দেশের ইতিহাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড স্থাপিত হলো। সোমবার ভোরে নীলফামারীর ডিমলায় বছরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ছিল ৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরো পড়ুন: শৈত্যপ্রবাহ আরো দুই দিন, দিনাজপুর ও নওগাঁয় দুজনের মৃত্যু

কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. মো. জাহাঙ্গির আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্বাধীনতার আগে ১৯৬৮ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে সর্বনিম্ন ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। এরপর আর কোনোদিন তাপমাত্রা এত নিচে নামেনি।

আরো পড়ুন: দিনাজপুরে তাপমাত্রা সর্বনিম্ন ৫.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস

এ ছাড়া রংপুর বিভাগের বেশিরভাগ এলাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে চলে এসেছে। পাশের বিভাগ রাজশাহীর অবস্থাও একই। সকালে রাজধানী ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে তাপমাত্রা হঠাৎ করে নিচে নেমে যাওয়ায় শীতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে জনজীবন। বিশেষ করে তীব্র শীতে খেটে খাওয়া ও ছিন্নমূল মানুষ চরম দুর্ভোগের মধ্যে রয়েছেন। ঠাণ্ডা নিবারণ করতে অনেককে খড়কুটো জ্বালিয়ে রাখতে দেখা গেছে।

গতকাল রবিবার দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল দিনাজপুরে ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরপরে রাজশাহীতে ঠাণ্ডা ছিল বেশি। সেখানকার তাপমাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল কক্সবাজারের টেকনাফে ২৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।



মন্তব্য