kalerkantho


কক্সবাজারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান, ম্যাজিস্ট্রেটকে হত্যার হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:২৪



কক্সবাজারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান, ম্যাজিস্ট্রেটকে হত্যার হুমকি

ছবি : কালের কণ্ঠ

কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল সড়কের সরকারি সম্পত্তির জবর দখল মুক্ত করতে গিয়ে একজন ম্যাজিস্ট্রেট হত্যার হুমকির মুখে পড়েছেন। আজ রবিবার বিকালের এ ঘটনায় শহরে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। কক্সবাজার সদর উপজেলা ভুমি অফিসের সহকারি কমিশনার (ভুমি) এবং জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাজিম উদ্দীনকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করার হুমকি প্রদান করেন ভূমি দখলকারীরা।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন রাতে জানান- কতিপয় ব্যক্তি বেশ ক’বছর আগে কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় সংলগ্ন প্রায় ১০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি জবরদখল করে রাখেন। জমিতে নির্মিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে কয়েক দফা অভিযান চালিয়েও কোন কাজ হয়নি। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় অভিযানে গেলে ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যার হুমকি দেয় দখলকারীরা। 

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাজিম উদ্দীন বলেন- অবৈধ স্থাপনার আংশিক উচ্ছেদ করে বেশ কয়েকটি দোকান সিলগালা করে দেয়া হয়। সরকারি কাজে বাধা ও আমাকে গুলিতে হত্যার হুমকির অভিযোগে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে তিনজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের মুচলেকা নিয়েই ছেড়ে দেয়া হয়েছে। 

ভূমি অফিস সূত্রে জানা গেছে, কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের ১নং খাস খতিয়ানের ৭০০১ দাগের প্রায় ১০ কোটি টাকা মূল্যের জমিটি দখল করে অবৈধভাবে স্থাপনা নির্মাণ করা হয়। কক্সবাজার জেলা সরকারি হাসপাতালের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান সহকারি মৃত আবদুস সামাদের ছেলে সরওয়ার কামাল রুমি নামের এক ব্যক্তি সরকারি সম্পদ দখলের পর উল্টো সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধেই মামলা দায়ের করেন। আদালতে ভুল তথ্য দিয়ে জমি দখলে নিতে একাধিক কাগজপত্রও তৈরি করেন অবৈধ দখলবাজ ব্যক্তি। 

এ বিষয়ে সরকারি সম্পত্তি জবরদখলকারি সরওয়ার কামাল রুমি সাংবাদিকদের জানান, তিনি সরকারি খাস খতিয়ানের জায়গা থেকে অবৈধ স্থাপনা খালি করে দিবেন। এছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে হত্যার হুমকি এবং ভুল তথ্য দিয়ে আদালতের মামলার জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন।



মন্তব্য