kalerkantho


বঙ্গোপসাগরে জলদস্যুর কবলে ১৭ জেলে, মুক্তিপণ দাবি

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৩:৩৬



বঙ্গোপসাগরে জলদস্যুর কবলে ১৭ জেলে, মুক্তিপণ দাবি

বঙ্গোপসাগরে জেলে বহরে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ট্রলারসহ ৩ জেলে অপহরণ করে ৭ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছে জলদস্যু বাহিনী। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোররাতে পাথরঘাটা থেকে ১শ২০ কিলোমিটার দক্ষিণ পুর্বে সোনার চরের কাছে। কোস্ট গার্ড ও পুলিশকে ঘটনার বিস্তারিত জানানো হয়েছে। তাদের উদ্ধারের জন্য অপারেশন শুরু করেছে কোস্টগার্ড ও র‌্যাব-৮।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী অপহৃত জেলেদের বরাত দিয়ে আজ শনিবার দুপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, মাছধরার সময় বৃহস্পতিবার দিবাগত ভোর রাতে দস্যু হাসান বাহিনী জেলে বহরে হামলা চালায়। জলদস্যুদল এফবি তরিকুল নামক ট্রলার ও এর ১৭ জেলেসহ অপহরণ করে এবং গভীর সাগরে চট্রগ্রামের দিকে চালিয়ে যায়। শুক্রবার দস্যুবাহিনী ১৪ জেলেকে ভিন্ন একটি ট্রলারে তুলে দিয়ে ফেরৎ পাঠায় এবং এফবি তরিকুল নামক ট্রলার, মিজান-৩৮, রাসেল ২৬ ও অপর একজন (নাম জানা যায়নি) সহ তিনজনকে নিয়ে চলে যায়। অপহৃতদের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার নলী গ্রামে। অপহৃত ট্রলারের মালিকের নাম মো. শোয়েব।

বিষয়টি ট্রলার মালিক সমিতির পক্ষ থেকে র‌্যাপিড এ্যকশন ব্যাটিলিয়ন (র‌্যাব)-৮, কোস্টগার্ড, বরগুনা ও পটুয়াখালী জেলা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানানো হয়।

এ ব্যপারে কোস্টগার্ড পাথরঘাটা স্টেশনের কমান্ডার লেফটেনেন্ট আসিফ মো. অনিক কালের কণ্ঠকে জানান, ইতোমধ্যে জলদস্যুরা ১৪ জেলেকে ভিন্ন ট্রলারে ফেরত দিয়েছে। তারা আজ (শনিবার) চিটাগাং ফিশারি ঘাটে পৌঁছাবে।

র‌্যাব-৮ এর মেজর সোহেল রানা প্রিন্স জানান, আজ দুপুরে জেলেদের উদ্ধারের জন্য গোয়েন্দা তৎপরতা চলছে।



মন্তব্য