kalerkantho


নোয়াখালীতে গৃহবধূর শরীরে আগুন, স্বামী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালী    

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৪:৪৪



নোয়াখালীতে গৃহবধূর শরীরে আগুন, স্বামী আটক

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় মোহছেনা বেগম (৩১) নামের এক গৃহবধূর শরীরে আগুন দিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছেন তার স্বামী জামাল উদ্দিন। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন জামাল উদ্দিনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। শরীরের ৫০ ভাগ পুড়ে যাওয়ায় গৃহবধূ মোহছেনাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গতকাল বুধবার রাত ২টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড কলেজ গেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটক জামাল উদ্দিন উপজেলার চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মো. মোস্তফার ছেলে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধূ মোহছেনা জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার স্বামী জামাল মাদকাসক্ত হয়ে তাকে মারধর করতেন। বুধবার রাতেও তাকে মারধর করার একপর্যায়ে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে জামাল উদ্দিনকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, গৃহবধূ মোহছেনার শরীরের প্রায় ৫০ শতাংশ পুড়ে গেছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, 'মোহছেনার মাদকাসক্ত স্বামীকে আটক করা হয়েছে।' এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।



মন্তব্য