kalerkantho


সভাপতি ও সম্পাদকের দ্বন্দ্ব

লক্ষ্মীপুর পৌর ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি কমিটি

কাজল কায়েস, লক্ষ্মীপুর    

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২১:১০



লক্ষ্মীপুর পৌর ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি কমিটি

ছবি : কালের কণ্ঠ

লক্ষ্মীপুর পৌর ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। আধিপত্য নিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল খায়ের ভূঁইয়া ও সাধারণ সম্পাদক সাহাবুদ্দিন সাবুর মধ্যে বিরোধের জের ধরে কমিটিগুলো ঘোষণা করা হয়। এনিয়ে বিভক্ত হয়ে পড়েছে দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। তাদের মধ্যে উত্তেজনাও বিরাজ করছে। আবুল খায়েরের পক্ষ নিয়ে কাজ করার অভিযোগ রয়েছে কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর বিরুদ্ধে। 

আজ সোমবার দুপুরে সাহাবুদ্দিন সাবুর উত্তর তেমুহনীর বাসায় জেলা ছাত্রদলের একাংশের কিছু নেতাকর্মী সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তারা বলেন, ১৬ ডিসেম্বর পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। জেলা কমিটির সভাপতি হারুনুর রশিদ ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম মামুন খামখেয়ালিভাবে অছাত্র ও বিবাহিতদের দিয়ে পকেট কমিটি করেছেন। এটি অসাংগঠনিক, অগণতান্ত্রিক ও গঠনতন্ত্রের অষ্টম ধারার পরিপন্থি।

সংবাদ সম্মেলনে পৌর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মোসাদ্দেক হোসাইন বাবরকে আহবায়ক ও সাবেক সহ-সভাপতি রেজওয়ার হোসেন আকবরকে সদস্য সচিব করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। পরে নতুন কমিটির নেতারা উত্তর তেমুহনী এলাকায় মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়।

ওই কমিটি অনুমোদন দেয় জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সম্পাদক গাজী সামছুর রহমান সবুজ, সুমন ভুঁইয়া, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সোহেল মাহমুদ ও আইন বিষয়ক সম্পাদক আমজাদ হোসেনসহ কয়েক নেতা।

এরআগে (১৬ ডিসেম্বর) আবুল খায়ের ভূঁইয়া ও শহীদ উদ্দিন এ্যানীর অনুসারী হিসেবে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ১৭ সদস্যের পৌর কমিটি ঘোষণা করেন। সেখানে দেলোয়ার হোসেন শিমুলকে আহবায়ক ও আবুল বারাকাত সৌরভকে সদস্য সচিব মনোনীত করা হয়।

পাল্টা পৌর কমিটির আহবায়ক মোসাদ্দেক হোসাইন বাবর বলেন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতির বয়স ৪০ বছর। সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধেও সংগঠন বিরোধী অভিযোগ রয়েছে। তারা আবুল খায়ের ও এ্যানী চৌধুরী মদদে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তাদেরকে দিয়ে সংগঠন চলতে পারে না।

জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হারুনুর রশিদ বলেন, কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে ত্যাগী নেতাকর্মীদের নিয়ে মেয়াদোত্তীর্ণ পৌর কমিটি ঘোষণা করা হয়। পদবঞ্চিত কিছু ছেলে অবৈধভাবে পাল্টা কমিটি করেছে বলে শুনেছি। দলীয় শৃঙ্গলা ভঙ্গের কারনে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



মন্তব্য