kalerkantho


শিবচরে অপহরণের ৬ দিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

মাদারীপুর প্রতিনিধি    

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২১:০১



শিবচরে অপহরণের ৬ দিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

ছবি : নিহত ওবায়দুর চোকদার

মাদারীপুরের শিবচরে অপহরণের ৬ দিন পর ওবায়দুর চোকদার (১০) নামের তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার গভীর রাতে মাদবরেরচর গ্রামের পুরাতন জাহাজঘাট এলাকার পদ্মা নদীর একটি মাছের ঘের থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ওবায়দুর শিবচর উপজেলার মাদবরেরচর ইউনিয়নের পূর্ব খাড়াকান্দি গ্রামের রতন চোকদারের ছেলে এবং খাড়াকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল।  

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ওবায়দুর গত ১২ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের এক দোকানে যায়। পরে বাড়ি ফেরার পথে নিঁখোঁজ হয়। পরদিন ১৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় একটি অজ্ঞাত মোবাইলে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করা হয়। এরপর থেকে ওই মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। 

এই ঘটনায় ১৪ ডিসেম্বর শিবচর থানায় জিডি করা হলে পুলিশ মোবাইলের কললিস্ট ধরে কৌশলে মারুফ চোকদার নামের এক যুবককে আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে অপহরণের কথা স্বীকার করেন। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পুলিশ অন্যদের আটক করে। পরে গতকাল রবিবার মধ্যরাতে পদ্মা নদীর একটি মাছে ঘের থেকে ওবায়দুরের লাশ উদ্ধার করে। আটককৃতরা হলো মারুফ চোকদার (২০), ইমরান (১৮), মনির (১৭) ও রাকিব (২০)। 
 
শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাকির হোসেন বলেন, এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। ওসি জানান, নিহতের বাবা রতন চোকদারের সাথে পদ্মা সেতুর অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণের টাকার ভাগাভাগির দ্বন্দ্ব নিয়ে মারুফ ও তার বাবা ফরিদ চোকদার ও মোহাম্মদ মুন্সী এ হত্যাকাণ্ড ঘটায় বলে আটক মারুফ পুলিশকে নিশ্চিত করেছে।

 



মন্তব্য