kalerkantho


কেরানীগঞ্জে পুকুরের বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২০:৪৭



কেরানীগঞ্জে পুকুরের বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা

ছবি : কালের কণ্ঠ

রাতের আধারে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন শাক্তা ইউনিয়নের দক্ষিণ বালুরচর এলাকার হাজি বুদ্দু বেপারীর মৎস্য খামারে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় দশ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ মৎস্য খামারী হাজি আনোয়ার হোসেন কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। আজ সোমবার দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে।

ক্ষতিগ্রস্থ মৎস্য খামারী হাজি মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর সৌদি আরবে ছিলেন। সেখানে থেকে তিনি মাছের ব্যবসা করতেন। প্রায় দশ বছর আগে সে দেশে ফিরে আসেন। তারপর নিজ পৈত্তিক এক একর সম্পত্তির উপর মাটি কেটে পুকুর তৈরী করে। সেখানে গত সাত বছর যাবত রুই, কাতলা, কার্গো, সিং, সোল, সরপুটিসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছের চাষ করে আসছে। 

তিনি জানান, গত শনিবার সকালে খামারের কাছে গেলে দেখি পুকুরের মাছ মরে ভেসে উঠছে। বন্ধের দিন থাকায় আমি স্থানীয় কয়েকটি জেলেকে ডেকে মাছগুলো দেখাই। তারা আমাকে পুকুরের পানিতে অক্সিজেনের অভাবে মাছ মারা যেতে পারে বলে পুকুরের পানিতে অক্সিজেন ব্যবহার করার পরামর্শ দেন। আমি তাদের কথামত পানিতে অক্সিজেন ব্যাহার করি। 

পরের দিন আরো বেশি মাছ মরে ভেসে উঠে। ঘটনাটি আমি সাথে সাথে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ সালাহউদ্দিন লিটন, উপজেলা মৎস্য অফিসে মৌখিকভাবে জানাই যে কে বা কাহারা তার খামারে রাতের আধারে বিষ প্রয়োগ করছে যার কারনে সব মাছ মরে ভেসে উঠছে। পরে থানায় গিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করি। এরপর তারা সবাই ঘটনাস্থলে এসে আমার পুকুর ও মরা মাছ দেখে যান।

উপজেলা মৎস্য অফিসার মাহফুজা বেগম বলেন, বিষয়টি আমি মৌখিকভাবে শুনে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে মরা মাছ দেখতে পেয়ে পানি পরিক্ষা করি যে পানি দুষন বা অক্সিজেনের অভাবে মাছগুলো মারা যাচ্ছে কি না। কিন্তু পানি, অক্সিজেন সবই ঠিক আছে। অন্য কোন উপায়ে বা বিষ প্রয়োগে মাছগুলো মারা যেতে পারে। তবে পানি পরিক্ষা না করে বিষের কথা বলা যাচ্ছে না।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সালাহউদ্দিন লিটন জানান, মাছ চাষী হাজি আনোয়ার সাহেবের সাথে এলাকায় কারো সাথে কোন প্রকার ঝগড়াজাটি নেই। তবে যে-ই কাজটি করেছে তদন্ত করে তাকে বের করে আইনের আওতায় আনা উচিত। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ এখলাস উদ্দিন জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর আজ সোমবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছি। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

                                     

 


মন্তব্য