kalerkantho


বিজয় দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:১৭



বিজয় দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আজ শনিবার দাউদকান্দি উপজেলা স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে ছিদ্দিকুর রহমান (৭০) নামে এক মুক্তিযোদ্ধা মৃত্যুবরণ করেছেন। মুক্তিযোদ্ধা মো. ছিদ্দিকুর রহমান উপজেলার দাউদকান্দি উত্তর ইউনিয়নের হাসনাবাদ গ্রামের মৃত আলী মিয়ার ছেলে।

পরাধীনতা থেকে মুক্ত করার জন্য ১৯৭১ সালে দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে আজকের এ দিনে বিজয়ের আনন্দ উল্লাসে বাড়ি ফিরছিলেন। আর আজ শনিবার সেই বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ফুল নিয়েই মুক্তিযোদ্ধা ছিদ্দিকুর রহমান মৃত্যুর ঢলে পড়েন। আজ সেই বিজয় দিবসের আনন্দ উল্লাসে যোগ দিয়ে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলেন। তাঁর মৃত্যু যেন দাউদকান্দি উপজেলার পুরো অনুষ্ঠানটি শোকে রূপ নেয়।

সরেজমিনে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে সকালে ফুল দিয়ে দিবসের শুভ সূচনার মধ্যে শুরু হয়। সকালে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে সর্বকালের জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধারা র‌্যালি নিয়ে অনুষ্ঠানস্থল উপজেলা স্টেডিয়ামে আসেন। র‌্যালি শেষে মুক্তিযোদ্ধাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন উপজেলা প্রশাসন নির্বাহী অফিসার মো. আল-আমিন ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন। মুক্তিযোদ্ধাদেরকে এক এক করে রজনীগন্ধা আর রক্ত গোলাপ নিয়ে বরণ করার সময় হঠাৎ মুক্তিযোদ্ধা ছিদ্দিকুর রহমান মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে সঙ্গে সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধারা তাঁকে দ্রুত গৌরীপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুক্তিযোদ্ধা ছিদ্দিকুর রহমানকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁর মৃত্যুর খবর বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে মাইকে ঘোষণা করার সঙ্গে সঙ্গে পুরো অনুষ্ঠানটি শোকে পরিণত হয়। শনিবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এ ব্যাপারে নিহত মুক্তিযোদ্ধা স্ত্রী আমেনা বেগমের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করলে তরতাজা স্বামী বিজয় দিবসের আনুষ্ঠানে গিয়ে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরবে এ কথা শুনার সঙ্গে সঙ্গে বার বার মুর্ছা যান। কথা বলার বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেন। দেশ স্বাধীনতার পর বিজয়ের দিনে বাড়ি ফিরছিলেন আর সেই বিজয় দিবসে স্বামী লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলেন এ শোক কিভাবে সইবো।   

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ও তার সহযোদ্ধা আবদুল জলিল মাষ্টার বলেন, মুক্তিযোদ্ধা ছিদ্দিকুর রহমান রণাঙ্গনে একসঙ্গে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে বীরের বেশে আনন্দ উল্লাস করে স্বাধীন দেশের পতাকা নিয়ে ফিরছিলাম। আজ সেই বিজয় দিবসে ফুল নিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। তাঁর মৃত্যুতে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানটি শোকে পরিণত হয়।

উপজেলা প্রসাশন ও নির্বাহী অফিসার মো. আল-আমিন বলেন, সকালে একসঙ্গে ফুল দিয়ে বিজয় দিবস অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করা হয়। পরে মুক্তিযোদ্ধারা র‌্যালি শেষে অনুষ্ঠানস্থলে আসার পর তাঁদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করা সময় হঠাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে পাঠানোর পর মৃত্যুর খবর শুনার পর পুরো অনুষ্ঠাটি শোকে পরিণত হয়।



মন্তব্য