kalerkantho


প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে হত্যার চেষ্টা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০২:৪৯



প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে হত্যার চেষ্টা

প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভার আচাগাঁও মহল্লায় মাহিন আফরোজ মিয়াদ (১৬) নামে এক বখাটে যুবক বাড়িতে ঢুকে এসএসসি পরীক্ষার্থী এক ছাত্রীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে ওই ছাত্রীর মাকেও আহত করে পালিয়ে যায় বখাটে মিয়াদ। আজ বুধবার বিকেলে এ ঘটনাটি ঘটে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ছাত্রীকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
 
আহত ছাত্রীর মা জানান, গত চার বছর ধরে তাঁর মেয়েকে প্রতিবেশী আল-আমীনের ছেলে মাহিন আফরোজ মিয়াদ প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এতে তাঁর মেয়ে ঘটনাটি তাঁকে জানায়। তখন মান সম্মানের কথা ভেবে নিজের মেয়েকই উল্টো শাসন করে দেন। কিন্তু মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার সময় পথে প্রায়ই উত্যক্ত করে বখাটে মিয়াদ। এক পর্যায়ে মিয়াদের বাবা মা ও চাচাদের ঘটনা জানালেও কোনো কাজে আসেনি। এই অবস্থা মুখ বুঝে সহ্য করে আসছেন। 
 
তিনি বলেন, প্রায় রাতই মিয়াদ তার দলবল নিয়ে ঘরে পিছনে এসে শীস মেরে বিভিন্ন ভাষায় কথা বলে মেয়েকে উত্যক্ত করে আসছিল। কয়েক মাস আগেও এ ঘটনা নিয়ে ফের স্থানীয় কাউন্সিলর ও মিয়াদের পরিবারেকে ঘটনা জানিয়ে প্রতিকার পাওয়া যায়নি। এক পর্যায়ে মিয়াদ প্রকাশ্যে হুমকী দেয়, তার কথায় রাজী না হলে মা মেয়ে দুইজনকেই খুন করবে।
 
ছাত্রীর বাসায় গেলে তার খালা বলেন, বাসার পশ্চিম দিকের একখণ্ড খালি জমিতে তাঁদের একটি গাভিকে চড়ানো হচ্ছিল। বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে মহল্লার কিছু তরুণ ক্রিকেট খেলার সুবিধার জন্যে বাঁশের খুটি থেকে গাভির রশি খুলে দেয়। তার বোন গিয়ে প্রতিবাদ জানালে মিয়াদের সাথে কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তাঁর বোন বাসায় চলে আসে। 
 
কিছুক্ষণ পর মিয়াদ তাদের বাসায় প্রবেশ করে তাঁর বোনকে বেধরক মারধর শুরু করে। মাকে বাঁচাতে ছুটে আসে তাঁর ভাগ্নি। ওই তরুণ তখন ধারালো ছুরি দিয়ে তাঁর ভাগ্নিকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। ডাক-চিৎকার শুনে লোকজন ছুটে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ছাত্রীকে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। 
 
 
                  
    
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 


মন্তব্য