kalerkantho


জেলা প্রশাসকের প্রতিবেদন হাইকোর্টে

গাজীপুর জেলায় খাস পুকুর ও ৮৪৭ জলাশয়

অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে মামলা করতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০২:২৩



গাজীপুর জেলায় খাস পুকুর ও ৮৪৭ জলাশয়

গাজীপুর জেলায় ৮৪৭টি খাস পুকুর ও জলাশয় রয়েছে বলে হাইকোর্টকে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। আদালতে দেওয়া গাজীপুর জেলা প্রশাসকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জেলায় ইজারাযোগ্য পুকুরের সংখ্যা ৫২১টি। এর মধ্যে ১৯৫টি পুকুর তিন বছর মেয়াদে ইজারা দেওয়া হয়েছে। ৩৩টি পুকুর নিয়ে মামলা চলছে। এরই মধ্যে যেসব পুকুর অবৈধ দখল হয়েছে, সেসব দখলদারের বিরুদ্ধে মামলা করা এবং তাদের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ আদায়ের উদ্যোগ নিয়েছে জেলা প্রশাসন।

বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে গতকাল রবিবার এ প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। আদালত আগামী ২৫ জানুয়ারি পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন। প্রতিবেদন পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস। এর আগে এ আদালত গত ১০ অক্টোবর স্বপ্রণোদিত হয়ে এক আদেশে গাজীপুরের খাস পুকুর-জলাশয় দখলমুক্ত করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। 'সরকারি পুকুর ভরাট করে দখলের হিড়িক' শিরোনামে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে আদালত ওই আদেশ দেন।

জেলা প্রশাসকের প্রতিবেদনে বলা হয়, দীর্ঘদিন ধরে খাস পুকুরগুলো সংস্কার না করায় তা অবৈধভাবে দখল হয়ে যাচ্ছে। এসব পুকুর বা জলাশয় মাছ কিংবা জলজ প্রাণী বসবাসের অনুপযুক্ত হওয়ায় তা ইজারা দেওয়া যাচ্ছে না। তাই খাস পুকুরগুলো সংস্কার করা প্রয়োজন। অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ ও সংস্কারের জন্য পর্যাপ্ত অর্থের প্রয়োজন। স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিজ নিজ অধিক্ষেত্রের আওতাভুক্ত খাস পুকুর বা জলাধার সংস্কার, রক্ষণাবেক্ষণ ও সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য এডিবির আওতায় উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, 'জেলা প্রশাসকের তৈরি করা সর্বশেষ তালিকা অনুযায়ী দেখা গেছে, জেলায় মোট খাস পুকুরের সংখ্যা ৩৮৪টি। এর মধ্যে শহরে ও আশপাশে ৪৬টি ভরাট করা হয়েছে।' প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, 'গাজীপুরের জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীরের নেতৃত্বে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে দখল করা পুকুর উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। গত বুধবার সকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে টঙ্গীর খাপড়া এলাকায় সরকারি খাস পুকুর উদ্ধার করা হয়েছে। যার দাম ১০০ কোটি টাকার বেশি।'



মন্তব্য