kalerkantho


আটক ১

চাঁদা না দেওয়ায় শিবগঞ্জের চার ইটভাটায় হামলা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ    

২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ২১:২২



চাঁদা না দেওয়ায় শিবগঞ্জের চার ইটভাটায় হামলা

চাঁদা না দেওয়ায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে শিবগঞ্জের চার ইটভাটায়  হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। শিবগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জেনারুল ইসলামের ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করলে তা পূরণে ভাটা মালিকরা অপারগতা প্রকাশ করেন।

আজ শুকবার সকাল থেকে তিন ঘণ্টাব্যাপী চারটি ইটভাটায় হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটানো হয় বলে জানান ভাটা মালিকরা। এতে প্রায় ১০ কোটি টাকা ক্ষতি হয় বলে দাবি করেছেন ভাটা মালিকরা।

এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। শিবগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের কয়লা দিয়াড় এলাকায় এ ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও র‌্যাব ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কয়লা দিয়াড় এলাকায় আবু তালেবের মালিকানাধীন সেভেন স্টার ব্রিকস, তৌফিকুল ইসলামের মালিকানাধীন সাথী ব্রিকস ও জগন্নাথ চন্দ্র প্রামানিকের মালিকানাধীন দুইটি ইটভাটা সনি ব্রিকসে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত জেনারুল ইসলামকে আটক করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। তবে তাকে থানা থেকে ছাড়ানোর জন্য চেষ্টা চলছিল বলে একটি অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে।

শিবগঞ্জ থানা ওসি হাবিবুল ইসলাম একজনকে আটকের কথা স্বীকার করে জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এ ব্যাপারে মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।

শিবগঞ্জ থানার এসআই মো. আব্দুস সালাম জানান, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সেভেন স্টার ব্রিকস  ফিল্ডের ব্যবস্থাপক তরিকুল ইসলাম বলেন, "শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে দেড়-দুই শ লোক প্রথমে সাথী ব্রিকসে হাতে লাঠি, রডসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিদ হয়ে হামলা, ভাঙচুর লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের পর আমাদের ইটভাটায় একই ধরনের ঘটনা ঘটায়। " তিনি বলেন, ভাটায় থাকা বিভিন্ন ঘর ও স্থানে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট করে। তিনি আরো বলেন, "আজ শুক্রবার ছিল লেবার পেমেন্টের দিন, ক্যাশে রক্ষিত ছয় লাখ টাকা তারা নিয়ে চলে যায় এবং বেশ কয়েকজন শ্রমিককে লাঞ্ছিত ও মারধর করায় কয়েকজন আহত হন। "

আবুল হোসেন নামের স্থানীয় এক ব্যক্তি বলেন, "সকাল ১১টা থেকে তিন ঘণ্টাব্যাপী চারটি ব্রিকস ফিল্ডে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটায় আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। "

ভাটা মালিক মো. আবু তালেব বলেন, "আমার সেমি অটো ইটভাটায় সন্ত্রাসীরা হামালা, ভাঙচুর ও লুটপাট করায় প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। " সাথী ব্রিকস ফিল্ডের মালিক তৌফিকুল ইসলাম বলেন, "একটি আধুনিক ইটভাটা হিসেবে সেখানে থাকা মেশিন, জেনারেটরসহ নানা সরঞ্জামাদি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ফলে প্রায় দেড় কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। " ভাটা মালিক জগন্নাথ চন্দ্র প্রামানিক বলেন, "আমার দুইটি ইটভাটায় হামলার ঘটনা ঘটে। " 

চারটি ইটভাটার তিন মালিক আরো জানান, জেনারুল ইসলাম ও আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে দেড়-দুই শ লোক হামালা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটায়। এর আগে তারা ভাটাপ্রতি পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তা না দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটায় তারা।  


মন্তব্য