kalerkantho


ভোলায় ইউএনও'র বিচার দাবিতে স্মারকলিপি

ভোলা প্রতিনিধি    

২২ নভেম্বর, ২০১৭ ১৫:৫২



ভোলায় ইউএনও'র বিচার দাবিতে স্মারকলিপি

ভোলার মনপুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহাগ হাওলাদারের বিচার দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

আজ বুধবার সকালে উপজেলার উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের চরনিজাম এলাকার নির্যাতিত দিনমজুর মো.  হাদিস এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপি হাতে পেয়ে জেলা প্রশাসক মোহাং সেলিম উদ্দিন এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন।  

স্মারকলিপিতে বলা হয়, মনপুরার ইউএনও সোহাগ হাওলাদারের নেতৃত্বে স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মীরা গত ১৮ নভেম্বর সকালে উপজেলার উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের চর নিজামে গিয়ে শতাধিক ভূমিহীন কৃষক-দিনমজুরের ঘরে হামলা চালানো হয়। তাদের বসতঘরে ভাঙচুর করে জ্বালিয়ে দেন তারা। এ সময় দিনমজুর হাদিস হামলা-ভাঙচুরের কারণ জানতে চাইলে ইউএনও সোহাগ হাওলাদার তাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন ও পুলিশ গুরুতর আহত হাদিসকে উদ্ধার করে ওইদিন রাতে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরদিন রবিবার সকালে তাকে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ও সোমবার সকালে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত সোমবার চর নিজাম এলাকার মানুষ ইউএনও'র বিচার দাবিতে মানববন্ধন করে।

এদিকে, হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার্স ফোরাম ভোলা জেলা শাখার সভাপতি মোবাশ্বির উল্লাহ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন দিনমজুরের ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলাকারী মনপুরার ইউএনও'র শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মনপুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহাগ হাওলাদার আজ বুধবার দুপুরে কালের কণ্ঠকে বলেন, "আমি হাদিসকে মারিনি।

জমির দখল নিয়ে দখলদার ও স্থানীয়দের সঙ্গে দুই পক্ষের মধ্যে মারামরি হয়েছে। "        


মন্তব্য