kalerkantho


সহকর্মীর এক ঘুষিতেই শ্রমিকের মৃত্যু, অভিযুক্ত আটক

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২১ নভেম্বর, ২০১৭ ১২:২০



সহকর্মীর এক ঘুষিতেই শ্রমিকের মৃত্যু, অভিযুক্ত আটক

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে সহকর্মীর এক ঘুষিতে খাবার হোটেলের শ্রমিক মো. রিয়াজের (১৪) মৃত্যু হয়েছে। শ্রমিক আবিরের (১৫) ঘুষিতেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে।

গতকাল সোমবার রাত ৯টার দিকে রামগতি উপজেলা সদর আলেকজান্ডার বাজারে গ্রামীণ হোটেল এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আবিরকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়াও ওই হোটেলের আরো পাঁচজন শ্রমিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেওয়া হয়।  নিহত রিয়াজ উপজেলার শিক্ষাগ্রামের সফু মাঝির ছেলে। আর অভিযুক্ত আবির কলাকোপা গ্রামের আবদুল হাইয়ের ছেলে।

নিহতের মা পারভীন আক্তার ও বাবা সফু মাঝি বলেন, পরিবারের অভাব মেটাতে ৩ বছর থেকে গ্রামীণ হোটেলে শ্রমিকের কাজ করে রিয়াজ। সোমবার রাতে হোটেলের রান্নাঘরে তার সহকর্মী আবিরের সঙ্গে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে আবির ও হোটেল মালিক জাহের তাকে মারধর করে। এ সময় রিয়াজ গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। পরে রিয়াজকে উদ্ধার করে রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়।

 

তারা আরো বলেন, চিকিৎসকদের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। এ সময় হোটেল মালিক তার মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ স্বজনদের।  

এ ব্যাপারে রামগতি থানার ওসি মো. ইকবাল হোসেন বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই হোটেল কর্মচারীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শ্রমিক আবিরের ঘুষিতে রিয়াজ জ্ঞান হারায়। নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে তাকে মৃত ঘোষণা করে। এই ঘটনায় আবিরকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


মন্তব্য