kalerkantho


শেবাচিম কলেজের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বরিশাল অফিস   

২০ নভেম্বর, ২০১৭ ২১:৫০



শেবাচিম কলেজের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র সমিতির ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন দিনভর ব্যপক কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, র‌্যালি, আলোচনা সভা, ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

দিনভর পুরো কলেজ ক্যাম্পাস বিগত ৪৯টি ব্যাচের শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে মুখরিত হয়। আর এ আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে অনুষ্ঠানে যোগদেন দেশের খ্যাতনামা বিশেষজ্ঞ চিকিত্সকসহ তাদের শিক্ষকরা। আনন্দ-হাসি-কান্না আর বিগত কয়েক বছরে বন্ধুদের হাড়ানোর বেদনার মধ্য দিয়ে দুপুরে শেষ হয় স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান।

কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. ভাস্কর সাহার সভাপতিত্বে সোমবার সকাল ১০টায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধন শেষে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শরফুদ্দিন আহম্মেদ। তিনি বলেন, সবার জন্য স্বাস্থ্য বঙ্গবন্ধুর এই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য সকল চিকিত্সককে একযোগে কাজ করতে হবে। বরিশালের এই মেডিক্যাল কলেজটি এখন পর্যন্ত দক্ষিণাঞ্চলের সুবিধা বঞ্চিত বিশাল জনগোষ্ঠীকে চিকিত্সা প্রদান করে যাচ্ছে। পাশাপাশি এ অঞ্চলের সর্ববৃহৎ বিদ্যাপীঠ হিসেবে অগনিত কিশোর-তরুণদের শিক্ষানুরাগী হতে উদ্বুদ্ধ করছে। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় এই কলেজের অনেক শিক্ষক-শিক্ষার্থী মুক্তিযুদ্ধে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছেন। তাই এই মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার দাবি সকলের।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে কেক কাটা ও র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি মেডিক্যাল কলেজ ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে ক্যাম্পাসে এসে শেষ হয়। এরপর বেলা ১১টায় কলেজ অডিটোরিয়ামে স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, প্রাক্তন শিক্ষক ক্যাপটেন (অব.) সিরাজুল ইসলাম, বিএমএ বরিশাল শাখার সভাপতি ডা. মো. ইসতিয়াক হোসেন, বরিশাল জেলা স্বাচিপ'র সভাপতি ডা. মু. কামরুল হাসান সেলিম, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ডা. এসএম সারওয়ার, বরিশাল বিএমএ'র সাধারণ সম্পাদক ডা. মনিরুজ্জামান প্রমুখ।


মন্তব্য