kalerkantho


বিএনপির ৬১ জন আটক

গৌরনদীতে তারেকের জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে হামলা, আহত ২০

বরিশাল অফিস    

২০ নভেম্বর, ২০১৭ ২১:৩৮



গৌরনদীতে তারেকের জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে হামলা, আহত ২০

বরিশালের গৌরনদী পৌর সদরের পালরদী গ্রামে আজ সোমবার বিকেলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনা ঘটেছে। জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হামলায় গৌরনদী উপজেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের অন্তত ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে দলীয় সূত্র দাবি করেছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে উপজেলা ও পৌর ছাত্রদল এবং যুবদলের উদ্যোগে আজ সোমবার বিকেলে তার পালরদীস্থ ফায়ার সার্ভিসসংলগ্ন বাসভবনে কেককাটা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে অনুষ্ঠান শুরু হয়। বিকেল ৫টার দিকে গৌরনদী উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগ ও যুবলীগের প্রায় শতাধিক সশস্ত্র নেতাকর্মী লাঠিসোঁটা নিয়ে অতর্কিতে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা এলোপাতাড়ি  পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আহতদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপির সিরাজুল ইসলাম (৪২), দেলোয়ার হোসেন (৩৬) ও জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৮), যুবদলকর্মী  আরিফ হোসেন (২৮), আবু জাফর (৩২) ও সিকদার মমিন উদ্দিন  (৩০), ছাত্রদলকর্মী শফিকুল ইসলাম (২৪), রিপনসহ (২৬)  অন্তত ২০ জন। আহতরা গ্রেপ্তার এড়াতে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে দলীয় সূত্র জানায়। এ ছাড়া সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে আহত হয়েছেন ফারুক হোসেন নামের এক সাংবাদিক।

হামলার অভিযোগ অস্বীকার উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জোবায়ের ইসলাম বলেন, "হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগের কোনো  নেতাকর্মী জড়িত নয়। বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে প্রতিপক্ষের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে। " 

পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন হাওলাদার বলেন, "যুবলীগের নেতাকর্মীরা সন্ত্রাস নৈরাজ্যবিরোধী রাজনীতিতে বিশ্বাসী। বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা প্রতিপক্ষের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। এতে যুবলীগের কেউ জড়িত নাই। "

গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, পুলিশের উপস্থিতিতে হামলার অভিযোগ সত্য নয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে  আনে। ঘটনাস্থল থেকে ৩১ জন বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতদের মধ্যে রয়েছেন উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী সরোয়ার হোসেন, বিএনপি নেতা আমিনুল ইসলাম, পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক মো. মাহফুজ মোল্লা, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জি এম সুনান, মাসুম বেপারী, সবুজ হাওলাদার, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম মোর্শেদ মাসুদ, মাসুম হাওলাদার, আল আমিন হাওলাদারসহ ৬১ জন।  


মন্তব্য