kalerkantho


স্মারকলিপি পেশ

পায়রা সমুদ্র বন্দরে নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি    

২০ নভেম্বর, ২০১৭ ১৬:৩৩



পায়রা সমুদ্র বন্দরে নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন

পটুয়াখালীর কলাপাড়ার পায়রা সমুদ্রবন্দরে জনবল নিয়োগের ক্ষেত্রে নিঃশর্তে স্থানীয় প্রার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিয়োগ প্রদানের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

'অধিকার সুরক্ষিত হোক সরকারের মহানুভবতায়'- এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আজ সোমবার সকাল ১১টায় কলাপাড়া প্রেসক্লাব চত্বরে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

সামাজিক সংগঠন গৌরবজ্জল ৯৯ এর সহযোগিতায় কলাপাড়া প্রেসক্লাব এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

কলাপাড়া প্রেসক্লাব সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন মাননু'র সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন সুশাসনের জন্য নাগরিক'র (সুজন) উপজেলা সভাপতি শামসুল আলম, পটুয়াখালী জেলা পরিষদের সদস্য এস এম মোশারফ হোসেন, কমিউনিস্ট পার্টির উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নাসির তালুকদার, কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহসীন পারভেজ, টিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ মশিউর রহমান শিমু, ক্ষতিগ্রস্ত ভূমির মালিক মো. শওকত হোসেন বিশ্বাস, কলাপাড়া প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক জসীম পারভেজ, গৌরবজ্জল ৯৯ এর সদস্য এস এম শামসুল আরেফিন, সুহৃদ ৯৮ এর সভাপতি গাজী রাইসুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জামান সুজন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, কলাপাড়ায় পায়রা বন্দর নির্মাণের জন্য সরকার উদ্যোগ গ্রহণ করলে স্বাগত জানায় স্থানীয়রা। দেশের স্বার্থে কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখলী ও লালুয়া ইউনিয়নের কৃষক ও জমির মালিকরা কয়েক হাজার একর জমি অধিগ্রহণ বাবদ দিয়েছে সরকারকে। এতে বাঁধ সাধেনি কেউই। তারা স্বেচ্ছায় তাদের জমি দিয়ে সরকারের এ বৃহত্তম প্রকল্প বাস্তবতায়নে সহযোগিতা করেছে। এসব এলাকার মানুষ কৃষিজমি, ভিটেমাটি, পুকুর, বৃক্ষ সম্পদ, অবকাঠামো এবং মাছের ঘের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় স্থানীয়রা পায়রা বন্দরের চলমান নিয়োগ প্রক্রিয়াসহ সামনের সকল নিয়োগে যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগের জোর দাবি জানিয়েছেন। কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন মাননু তার বক্তব্যে বলেন, "সরকার চাকরির ক্ষেত্রে বিভিন্ন কোটা অনুসরণ করে থাকে।

পায়রা বন্দরের চাকরির ক্ষেত্রেও এ এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকদের স্বার্থে আলাদা কোটা সংরক্ষণ করার দাবি জানাই। " 

মানববন্ধন শেষে স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের চাকরি প্রার্থী সদস্যরা কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তানভীর রহমানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারমলিপি প্রদান করেন।

পায়রা সমুদ্র বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মহিউদ্দিন আহমেদ খান ইতোপূর্বে জানান, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের শুধু পুনর্বাসন করা হবে না, তাদের সন্তানদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আত্মকর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। বিষয়টি বাস্তবায়নের জন্য প্রক্রিয়া চলছে। "  


মন্তব্য