kalerkantho


সরোয়ারের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

বরিশাল অফিস ও ঝালকাঠী প্রতিনিধি    

১১ নভেম্বর, ২০১৭ ১৯:৩৯



সরোয়ারের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

কেন্দ্রীয় বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের বিরুদ্ধে এক মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। আজ শনিবার বরিশাল বিমানবন্দরের (রহমতপুর) ভিআইপি লাউঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার মুজিবুর রহমান লাঞ্ছিত হন বলে জানা গেছে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে।

খন্দকার মজিবুর রহমান ঝালকাঠী জেলা পরিষদের সদস্য ও নলছিটি উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি। ঘটনার সময় ঝালকাঠী ১ আসনের সংসদ সদস্য বি এইচ হারুন ভিআইপি লাউঞ্জে উপস্থিত ছিলেন।

মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার মুজিবুর রহমান মুঠোফোনে কালের কণ্ঠকে জানান, সাংসদ বি এইচ হারুন আকাশপথে ঢাকায় যাবেন। তিনি শনিবার দুপুরে বিমানবন্দরে অপেক্ষায় ছিলেন। তাকে এগিয়ে দেওয়ার জন্য তিনি ভিআইপি লাউঞ্জে অবস্থান করছিলেন। হঠাৎ বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ার ভিআইপি লাউঞ্জে প্রবেশ করেন। কিছু বুঝে উঠার আগেই তাকে কটাক্ষ করে তিনি (সরোয়ার) কথা বলেন। এর প্রতিবাদ করলে সরোয়ার তার দিকে তেড়ে আসেন।

একপর্যায়ে তার অনুসারীরাও তাকে মারতে উদ্যত হন।

তবে কেন তার দিকে মজিবর রহমান সরোয়ার তেড়ে আসেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, "পরবর্তীতে আমি জানতে পারি তিনি (সরোয়ার) আমার সঙ্গে নাকি সাক্ষাৎ করতে এসেছেন আর আমি এড়িয়ে গেছি। "

বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক হানিফ গাজী বলেন, "বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার বিমানযোগে ঢাকার উদ্দেশে বরিশাল ত্যাগ করতে ভিআইপি লাউঞ্জে প্রবেশ করেন। এ সময় তিনি সবার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে থাকেন। একপর্যায়ে ঝালকাঠি জেলা পরিষদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার মুজিবুর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসলে তিনি সাক্ষাতে বিলম্ব করেন। এতে একটু মনোমলিন্য হয় উভয়ের মধ্যে। " 

ঝালকাঠী ১ আসনের সাংসদ বিএইচ হারুন বলেন, "ঘটনার সময় আমি বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জের ওয়াশরুমে ছিলাম। বের হয়ে শুনেছি একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। তবে বের হওয়ার পরই প্রশাসন বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে আনে। "  


মন্তব্য