kalerkantho


আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি    

২৩ অক্টোবর, ২০১৭ ২০:০১



আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা-মধ্যনগর সড়কের পাশের লক্ষাধিক টাকা মূল্যের সরকারি পাঁচটি আকাশি জাতের গাছ কেটে নিয়ে গেছেন বলে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বৌলাম গ্রামের সামনের রাস্তার পাশে থাকা ওই পাঁচটি সরকারি গাছ কেটে নেন বৌলাম গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মো. শাহজাহান মিয়া।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে জেলার ধর্মপাশা-মধ্যনগর সড়কের বৌলাম নামক স্থানে সড়কের পাশে থাকা লক্ষাধিক টাকা মূল্যের পাঁচটি আকাশি জাতের গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন উপজেলার বৌলাম গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মো. শাহজাহান মিয়ার নেতৃত্বে ৭-৮ জন লোক। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা কাটা গাছগুলো নিয়ে যেতে তাদেরকে বাধা দেন এবং তারা জেলা বন বিভাগের কর্মকর্তাদের বিষয়টি অবহিত করেন। খবর পেয়ে আজ সোমবার বিকেলে বন বিভাগের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে কাটা গাছগুলো জব্দ করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা মো. শাহজাহান মিয়া গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগটি অস্বীকার করে বলেন, "গাছগুলো গত দুই দিন আগে ঝড়ে রাস্তার ওপর ফেলে রাখায় ওই রাস্তাটি মানুষজনের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। আমরা শুধু গাছগুলো কেটে রাস্তাটি লোকজনের চলাচলের উপযোগী করে দিয়েছি। "

বন বিভাগের সুনামগঞ্জ রেঞ্জের দায়িত্বে থাকা বন কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার দত্তের সঙ্গে মোবাইল ফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, "শুনেছি গাছগুলো ঝড়ে রাস্তার ওপর পড়েছিল। তবে কাটা ওই গাছগুলো আমরা জব্দ করেছি। " 


মন্তব্য