kalerkantho


লৌহজংয়ে শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৭ ১৩:০০



লৌহজংয়ে শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। আজ সোমবার সকালে বিদ্যালয়ের সম্মুখে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের ওপর এ মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা।

পরে তারা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা ধরে এ সড়ক অবরোধ করে রাখায় দুই প্রান্তে শত শত গাড়ি আটকা পড়ে। দেখা দেয় বিশাল যানজট।

এর আগে গতকাল রবিবার রাতে উপজেলা মেদিনী মণ্ডল ইউনিয়নের আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক রবিউল ইসলাম রুবেলের ওপর হামলা করে তিনটি দাঁত ফেলে দেয় সজিব সিকদার নামে এক ছাত্র। সজিব ওই বিদ্যালয়ে সদ্য প্রাক্তন ছাত্র। সে গত বছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। শিক্ষকের প্রতি ক্ষুব্ধ থাকায় এ হামলা হয়েছে বলে জানা যায়।

এ প্রসঙ্গে বিদ্যালয়টির দাতা সদস্য মোশারফ হোসেন নসু জানান, বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক রবিউল ইসলাম রুবেল রবিবার সন্ধ্যা রাতে প্রাইভেট পড়িয়ে সাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। তিনি মাওয়া বাজারের কাছে মসজিদের সন্নিকটে আসা মাত্রই গতবার এসএসসি পাস করা প্রাক্তন ছাত্র সজিব সিকদার ও তার দলবল ওই শিক্ষকের ওপর লাঠি দিয়ে হামলা চালায়।

লাঠির আঘাতে শিক্ষক রুবেলের তিনটি দাঁত পড়ে যায়। এ ছাড়াও রক্তাক্ত জখন হন তিনি। তাঁর একটি হাতও ভেঙে গেছে। তবে কি কারণে হামলা হয়েছে তা তিনি জানাতে পারেননি। তবে শ্রেণিকক্ষে পাঠদানে শিক্ষকের প্রতি ক্ষোভের কারণে সজিব এমনটি ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আহত শিক্ষক রুবেল হোসেনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

তবে অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, সজিব বিদ্যালয়ের একটি মেয়েকে প্রেম নিবেদন করায় ওই মেয়ে শিক্ষক রুবেলকে জানায়। রুবেল সজিবকে এ নিয়ে শাসন করে। এ কারণে তার প্রতি ক্ষুব্ধতার কারণে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে সজিব।  

এ ব্যাপারে লৌহজং থানার ওসি আনিচুর রহমান জানান, ঘটনাটি জানতে পেরে সাথে সাথে ফোর্স পাঠিয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সজিবকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তবে এখনো মামলা হয়নি।


মন্তব্য