kalerkantho


লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজের দুই দিন পরও তিন রাখালের সন্ধান মেলেনি

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২২ অক্টোবর, ২০১৭ ২৩:০৬



লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজের দুই দিন পরও তিন রাখালের সন্ধান মেলেনি

টানা বৃষ্টি ও জলোচ্ছ্বাসে লক্ষ্মীপুরের কমলগনগরের মেঘনা নদীর চরে নিখোঁজ হওয়া তিন রাখালের সন্ধান মেলেনি দুই দিনেও। আজ রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত নিখোঁজ রাখালদের স্বজনরা উপকূলের বিভিন্ন স্থানে তত্পরতা চালিয়েও খোঁজ পাননি।

এ নিয়ে চরম উত্কণ্ঠায় রয়েছেন তারা।

এদিকে ভেসে যাওয়ার সময় শতাধিক জীবিত মহিষ উপজেলার মাতাব্বরনগর, সাহেবেরহাট ও মতিরহাট এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে স্থানীয় লোকজন। উদ্ধার হওয়া বেশিরভাগ পশুই শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া নদীর বিভিন্নস্থানে বেশ কিছু ছোট-বড় মহিষ-গরু মরে ভেসে উঠতে দেখা গেছে।

নিখোঁজ রাখালরা হলেন উপজেলার পাটারিরহাটের আবদুর জাহের (৫০), চরফলকন গ্রামের হান্নান (৩৫) মো. বাহার (২৫)।
কমলনগর মহিষ খামার মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান স্বপন বলেন, নিখোঁজ রাখালদের সন্ধান পেতে আমরা নদীর তীরবর্তী এলাকাগুলোতে তত্পরতা চালিয়ে যাচ্ছি।

ক্ষতিগ্রস্ত মহিষ মালিক ফিরোজ বাঘা বলেন, স্থানীয়দের সহযোগিতায় শতাধিক মহিষ উদ্ধার হয়েছে।

কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন সারোয়ার বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের তালিকা করা হবে। নিখোঁজ রাখালদের খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২০ অক্টোবর) রাতে কমলনগরের চরকালকিনির মেঘনায় জেগে উঠা কাঁকরার চরে জলোচ্ছ্বাসে তিন রাখাল, ছয়শত মহিষ ও একশত গরু ভেসে যায়।


মন্তব্য