kalerkantho


ঝোড়ো হাওয়ায় বিদ্যুৎ বিপর্যয়

সুনামগঞ্জে ২২ ঘণ্টা ধরে বিদ্যুৎহীন ১ লাখ ৭০ হাজার গ্রাহক

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ অক্টোবর, ২০১৭ ১০:৫৪



সুনামগঞ্জে ২২ ঘণ্টা ধরে বিদ্যুৎহীন ১ লাখ ৭০ হাজার গ্রাহক

শনিবারের ঝোড়ো হাওয়ায় সুনামগঞ্জের ৩৩ হাজার কেভি লাইনের নানা স্থানে খুঁটি ভেঙে পড়ায় প্রায় ২২ ঘণ্টা ধরে বিদ্যুৎহীন আছে সুনামগঞ্জ জেলার প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজার গ্রাহক। শনিবার দুপুর ১২টার আগে বিদ্যুৎ চলে যাবার পর এখনো বিদ্যুতের দেখা পায়নি জেলাবাসী।

বিদ্যুৎ না থাকায় শহরের লোকজন পানি সংকটে পড়েছে। শনিবার দিনভর ঝোড়ো হাওয়ার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ লাইন সংস্কার করতেও বের হতে পারেনি সংশ্লিষ্টরা। আজ রবিবার সকালে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা ত্রুটিপূর্ণ লাইন খুঁজে মেরামত করতে বের হয়েছে বলে জানা গেছে।

সুনামগঞ্জ বিদ্যুৎ অফিস সূত্রে জানা গেছে পিডিবির অধীনে প্রায় ২০ হাজার গ্রাহক রয়েছে। ষাটের দশকে নির্মিত ছাতকের ৩৩ হাজার কেভি লাইনের মাধ্যমে ছাতক সাবস্টেশন থেকে বিদ্যুৎ এনে পিডিবি এই গ্রাহকদের সেবা দিয়ে আসছে। তবে একটু ঝড় বৃষ্টি হলেই এই লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ভোগান্তির মুখে পড়েন গ্রাহকরা। একই সাবস্টেশন থেকে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষও আলাদা লাইন নির্মাণ করে তাদের প্রায় দেড় লাখ গ্রাহককে সেবা দিয়ে আসছে।

শনিবারের টানা ঝোড়ো হাওয়ায় পল্লী বিদ্যুৎ ও পিডিবির লাইনও বিভিন্ন স্থানে খুঁটি নিয়ে ছিঁড়ে পড়েছে। ফলে শনিবার দুপুর ১২টা থেকেই পুরো জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে মানুষ নানা সমস্যায় থাকলেও বিদ্যুৎ না থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে। বিশেষ করে শহরের লোকজন পড়েছে বিপাকে। বিদ্যুতের অভাবে বাসা বাড়িতে পানি তোলা যাচ্ছে না।

জানা গেছে, শনিবার দুপুর ১২টায় বিদ্যুৎ চলে যাবার পর ঝোড়ো হাওয়া ও বৃষ্টির কারণে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত লাইন সংস্কারে বের হতে পারেনি। রবিবার সকালে পল্লী বিদ্যুৎ ও পিডিবির কর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত লাইন খুজে সংস্কারে নেমেছে। তবে সন্ধ্যার আগে সংযোগ দেওয়া সম্ভব হবে না বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানিয়েছে।

এদিকে বিদ্যুৎ বন্ধ থাকায় সকল মোবাইল অপারেটরদের সংযোগ বন্ধ রয়েছে। বিকল্প ব্যবস্থায় গ্রাহককরা কিছু সংযোগ চালু রাখলেও গ্রামীণফোন বাদে অন্যান্য অপারেটরদের টাওয়ারগুলো বিদ্যুতের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মোবাইল নেটওয়ার্কও নেই।

সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের জেনারেল ম্যানেজার সোহেল পারভেজ বলেন, আমাদের ৩৩ হাজার কেভি লাইনের অনেক স্থানে খুঁটি ভেঙে তার ছিঁড়ে লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শনিবার ঝোড়ো হাওয়ার কারণে কর্মীরা বের হতে পারেনি। আজ সকাল থেকেই তারা বিভিন্ন স্থানে ত্রুটিপূর্ণ লাইন খুঁজে মেরামত করছে। সন্ধ্যার আগেই আশা করি সংযোগ দেওয়া সম্ভব হবে।


মন্তব্য