kalerkantho


মেহেরপুরে বাঁচামরা বিলের শাপলা বাঁচায় অনেককে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ অক্টোবর, ২০১৭ ১৪:২৩



মেহেরপুরে বাঁচামরা বিলের শাপলা বাঁচায় অনেককে

শরৎ-হেমন্তে মেহেরপুরের বিলগুলোতে শাপলা আর পদ্মফুল ফোটে। পানির ওপরে ফোটা শাপলা (ঢ্যাপ) আর পদ্মফুল এক নান্দনিক দৃশ্য সৃষ্টি করে।

আবার শাপলা ফুল থেকে আয়ের পথ খুঁজে পায় বিলপাড়ের অনেক মানুষ।
মেহেরপুর সদর উপজেলার ফতেপুর গ্রামের কোল ঘেঁষে থাকা বিশাল একটি বিলের নাম 'বাঁচামরা বিল'।  

বিলপাড়ের আলফাজ হোসেন (৪৯) প্রতিদিন এই বিলের শাপলা (ঢ্যাপ) সংগ্রহ করে সবজি হিসেবে বিক্রি করেন। তিনি জানান, বছরের এই সময়টাতে শাপলা ফুলে ভরে থাকে বিলের পানি। মানুষ তাদের ইচ্ছামত ডাটাসহ ফুল তুলতে পারেন। ২০টি ডাটাসহ এক তোড়া শাপলা পাইকারি ১০ টাকা করে বিক্রি করেন তিনি।

তিনি আরো জানান, এই বাঁচামরা বিলের শাপলা তার মতো অনেককেই বাঁচিয়ে রেখেছে। তিন মাস ধরে তারা এ শাপলা বিক্রি করেই জীবিকা নির্বাহ করেন। গ্রামের অনেক মানুষেরই একটু বাড়তি আয়ের ভরসা জাতীয় ফুল শাপলা।


মেহেরপুরে সবজি হিসেবে শাপলার যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। সোমবার শহরের বড়বাজারে ফেরি করে আলফাজ হোসেন, হামিদ আলী, শুক্কুর মিয়াকে শাপলা বিক্রি করতে দেখা যায়। বিভিন্ন বাড়ির গৃহবধূরা শাপলা সবজি হিসেবে ক্রয় করছেন।

সদর উপজেলার ফতেপুরে বাঁচামরা বিল, তেরঘরিয়া বিল, উজলপুরে মাইলমারি বিল ও আমঝুপির চাঁদবিলে শাপলা পাওয়া যায়। শরৎ-হেমন্তে শাপলা আহরণ করে অনেকে আয়ের পথ বেছে নেন।
সূত্র : বাসস


মন্তব্য