kalerkantho


চাঁদপুরে বাড়ির দারোয়ানকে গলা কেটে হত্যা, মোটরসাইকেল চুরি

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৭ ১৪:২৮



চাঁদপুরে বাড়ির দারোয়ানকে গলা কেটে হত্যা, মোটরসাইকেল চুরি

চাঁদপুরে একটি বহুতল বাড়ির দারোয়ানকে গলা কেটে হত্যা করে ৪টি মোটরসাইকেল নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। আজ সোমবার ভোরে শহরের ট্রাক রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহত দেলোয়ার হোসেন ওই এলাকার ৮ তলাবিশিষ্ট সেবা আয়েশা গার্ডেন নামের বহুতল বাড়ির দারোয়ান ছিলেন। জানা গেছে, ঘটনার ৮ মাস আগে দারোয়ান হিসেবে এই বাড়িতে যোগ দেন তিনি। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর মতলব পৌরসভার দিঘলদী এলাকায়

ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা চুরির উদ্দেশে বাড়িটিতে ঢুকে। পরে দারোয়ান দেখে ফেলায় তাকে গলা কেটে হত্যা করে। এ সময় তারা ভাড়াটিয়াদের ৪টি মোটরসাইকেল নিয়ে চলে যায়।  

নিহতের পরিবারের সদস্য এবং স্থানীয়রা জানিয়েছেন, দেলোয়ার হোসেন (৫৮) বেশ ভালো লোক ছিলেন। এই পরিস্থিতিতে তাকে কারা হত্যা করেছে তা ভাবনার বিষয়। তারা এই হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করেন।  

প্রতিবেশী বাবুল পাটোয়ারী বলেন, গতরাতে এশার নামাজের পর তিনি দারোয়ান চাচাকে বিরিয়ানি খেতে দেন।

তাছাড়া প্রতিদিন ভোরে ও আছরের নামাজের পর ওই চাচা নিয়মিত পবিত্র কোরআন তেলোয়াত করতেন।
 
নিহতের স্ত্রী জোৎসা বেগম বলেন, একটু সুখের জন্য তার স্বামী শহরে এসে দারোয়ানের চাকরি নেন। কিন্তু এভাবে তাকে মরতে হবে জানলে বাড়ি থেকে পাঠাতেন না। বড় মেয়ে ফাতেমা বেগম বলেন, আমি বাবার হত্যার বিচার চাই।  

এদিকে এ ঘটনার পর ওই বাড়ির মালিক সাইফুল ইসলামকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চাঁদপুর শহরের সেবা হোল্ডিংস নামে তার এমন একাধিক বহুতলা বাড়ি রয়েছে।   

অন্যদিকে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। মরদেহটি দেখে ধারণা করা হচ্ছে, একাধিক ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে জবাই করে হত্যা করে। যাবার সময় তারা নিচতলার গ্যারেজে থাকা চারটি মোটরসাইকেল নিয়ে যায়।  

ওই বাড়ির চতুর্থ তলার ভাড়াটিয়া সৌরভ পাটোয়ারী জানান, তার মোটরসাইকেলও সেখানে ছিল। কিন্তু দুর্বৃত্তরা তা নেয়নি।

তবে কারা এই হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে বলে জানান চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি মো. ওয়ালীউল্লাহ। তিনি আরো জানান, এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত কেউ এখনো গ্রেপ্তার হয়নি।


মন্তব্য