kalerkantho


মঠবাড়িয়ায় এক মণ্ডপে ৪০ প্রতিমার দুর্গা পূজা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৭:১৪



মঠবাড়িয়ায় এক মণ্ডপে ৪০ প্রতিমার দুর্গা পূজা

ছবি : কালের কণ্ঠ

আসন্ন শারদীয় দুর্গা উৎসব উপলক্ষে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার কবুতরখালী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক শৈলেশ্বর হালদারের বাড়ি পূজামণ্ডপে ৪০টি প্রতিমা নির্মাণ করা হয়েছে। এ মণ্ডপে নির্মাণকৃত প্রতিমায় এখন চলছে রঙের প্রলেপ। প্রতিদিন শত শত মানুষ এ বিশালাকৃতির পূজা মণ্ডপের প্রতিমা দর্শনে আসছেন। এখানে পাঁচদিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গা উৎসবের ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে।

মঠবাড়িয়ার কবুতরখালী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক শৈলেশ্বর হালদার জানান, তার ছেলে ডা. সুদীপ কুমার হালদার ও পুত্রবধূ ডা. স্নিগ্ধা চক্রবর্তীর উৎসাহে এ ৪০ প্রতিমা পূজার আয়োজন করা হয়েছে। গত দুই মাস ধরে ছয়জন প্রতিমা কারিগর মিলে দুর্গাসহ ৪০ দেবদেবীর প্রতিমা নির্মাণ করছে। এজন্য প্রতিমা কারিগরদের দেড় লাখ টাকা মজুরীর চুক্তিতে এসব প্রতিমা নির্মাণ হচ্ছে।  

এখন রাত দিন কারগিররা মাটির প্রতিমার গায়ে বর্ণিল রঙের প্রলেপ দিতে মহা ব্যস্ত সময় পার করছেন। এবার মঠবাড়িয়ার ১১ ইউনিয়নের ৭৯টি পূজা মণ্ডপের মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড় পূজা মণ্ডপ। তাই প্রতিদিন দর্শনার্থীরা এ পূজা মণ্ডপে প্রতিমা দর্শণে আসছেন।

একটি পুকুর আর বসতবাড়ির পরিপার্শ্ব ঘিরে গড়ে তোলা হয়েছে বিশাল আকৃতির মণ্ডপ।

পুকুরের ভেতর ভাসমান একটি মন্দির নির্মাণ করা হয়ছে। সেখানে বাঁশের একটি সাঁকো তৈরি করা হয়েছে। সেই সাথে থাকছে পুরো মণ্ডপ জুড়ে বর্ণিল আলোর লাইটিং।

খুলনার কয়রা উপজেলার প্রতিমা কারিগর শংকর চন্দ্র বড়াল (৫৮) জানান, তিনি ৩০ বছর ধরে বংশানুক্রমে প্রতিমা নির্মাণ করে আসছেন। এবার তিনি পাঁচজন সহযোগি কারগির মিলে ৪০টি প্রতিমা নির্মাণ করেছেন। এ মণ্ডপে শ্রীশ্রী দুর্গা, নৌকায় মা দুর্গার আগমন, রাম সীতা, কালিয়া দমন, শ্রী কৃষ্ণের পুতনা বধ, মহাদেব ৩৫ দেব দেবীর প্রতিমা নির্মাণ করেছেন এ মণ্ডপে। এ প্রতিমা নির্মাণে টানা দুই মাস ব্যয় হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এক মণ্ডপে এক সাথে ৪০টি প্রতিমা গড়তে পেরে আমি খুব আনন্দিত।  


মন্তব্য