kalerkantho


নিখোঁজের তিন দিন পর সেফটিক ট্যাংকে কিশোরীর লাশ

কুমিল্লা দক্ষিণ প্রতিনিধি    

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২১:০৪



নিখোঁজের তিন দিন পর সেফটিক ট্যাংকে কিশোরীর লাশ

কুমিল্লার লাকসামে নিখোঁজের তিন দিন পর সেফটিক ট্যাংক থেকে শারমিন আক্তার (১৬) নামের এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার বিকেলে উপজেলার বাকই ইউনিয়নের কোঁয়ার গ্রামের পশ্চিমপাড়ায় অবস্থিত একটি মাদ্রাসার সেপটিক ট্যাংক থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় ওই কিশোরীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত শারমিন ওই গ্রামের রুস্তম আলীর মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত রবিবার থেকে কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না শারমিনের। পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করলেও তার কোনও হদিস মেলেনি। সর্বশেষ আজ বুধবার গ্রামের পশ্চিমপাড়ায় অবস্থিত হাফেজিয়া মাদ্রাসার সেফটিক ট্যাংকে বস্তাবন্দি অবস্থায় শারমিনের লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য তা কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

সত্যতা নিশ্চিত করে লাকসাম থানার ওসি মো.আবদুল্লাহ আল মাহফুজ কালের কণ্ঠকে বলেন, "লাশ উদ্ধারের পর তা মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে কী কারণে ওই মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। এ ব্যাপারে আমাদের তদন্ত চলছে।

" এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।


মন্তব্য