kalerkantho


তিনজন হাসপাতালে

শরণখোলায় চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে সর্বস্ব লুট

বাগেরহাট প্রতিনিধি    

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৯:৪৭



শরণখোলায় চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে সর্বস্ব লুট

বাগেরহাটের শরণখোলায় চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে পরিবারের সদস্যদের অচেতন করে সর্বস্ব লুট করে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের মধ্যে খোন্তাকাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

দুর্বৃত্তরা ওই গ্রামের শামছুদ্দিন নবাবের ঘরের জানালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে বাড়ির সবাইকে অচেতন করে লুটপাট চালায়।

অচেতন অবস্থায় গৃহকর্তা শামছুদ্দিন নবাব (৫৫), স্ত্রী রওশন আরা বেগম (৪৫) এবং তাদের ছেলে মর্তুজা হাসান সজিবকে (২৮) শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

গৃহকর্তার জামাতা নূরুল আমীন ডালিম জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুর্বৃত্তরা রান্নাঘরে খাবারের সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে রাখে। রাতে ওই খাবার খেয়ে সবাই অচেতন হয়ে পড়ে। আজ বুধবার সকাল ৭টার দিকে সজিবের কিছুটা চেতনা ফিরে এলে তার মা ও বাবাকে অচেতন অবস্থায় ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় সে প্রতিবেশী এবং আত্মীয়-স্বজনকে জানালে তারা এসে তাদের তিনজনকে নিয়ে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

নূরুল আমীন ডালিম আরও জানান, দুর্বৃত্তরা ঘরে ঢুকে লুটপাট চালায়। তারা আলমারি ভেঙে নগদ তিন লাখ টাকা, দেড় লাখ টাকার স্বর্ণালংকার, জমির দলিলপত্র ও একটি মোবাইল ফোন সেট নিয়ে গেছে। দুর্বৃত্তরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ওই বাড়িতে এ ঘটনা ঘটায় বলে তার ধারণা।

শরণখোলা থানার ওসি মো. আব্দুল জলিল বলেন, "অচেতন করে বাড়ির মালাল নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় পুলিশ খোঁজখবর নিচ্ছে। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। "  


মন্তব্য