kalerkantho


দিনাজপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত রেলপথ চালু হবে ঈদের আগে

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২০ আগস্ট, ২০১৭ ০০:৫৩



দিনাজপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত রেলপথ চালু হবে ঈদের আগে

লালমনিরহাট অঞ্চলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত রেলপথগুলোর মধ্যে পার্বতীপুর-দিনাজপুর রেলপথে সংস্কার মেরামত কাজ শেষ করে ঈদের আগেই দুটি আন্তঃনগর ট্রেনসহ সবগুলো যাত্রীবাহী ট্রেন চালানো হবে। ঈদে ঘরে ফেরা মানুষদের কথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যে এই রুটে সংস্কার ও মেরামতের কাজ শুরু করা হয়েছে।

 

রেলওয়ের স্থানীয় একটি সূত্রে জানা যায়, পার্বতীপুর-দিনাজপুর রেলপথে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানগুলো রেলওয়ের সর্বোচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা মহাপরিচালক আমজাদ হোসেন, সচিব মোফাজ্জল হোসেনসহ একটি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন টিম শনিবার মন্মথপুর, চিরিরবন্দর, কাউগাঁ ও বাজনাহারে বন্যার তীব্র স্রোতে ওয়াশআউট হওয়া স্থানগুলো দেখেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার পশ্চিম রেলের মহাব্যবস্থাপক খাইরুল আলমের নেতৃত্বে অপর একটি টিম উল্লেখিত ঐ স্থানে ক্ষতিগ্রস্ত জায়গাগুলো দেখেন।

এদিকে, পশ্চিম রেলের একজন কর্মকর্তা তার নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, দিনাজপুর রেলপথকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে ঈদের আগেই সচল করা হবে এবং আন্তঃনগর একতা ও দ্রুতযান ট্রেনসহ সব যাত্রীবাহী ট্রেন দিনাজপুর পর্যন্ত চলাচল করবে।  

উল্লেখ্য, বন্যায় উজানের ঢলে রেললাইনের নিচ থেকে মাটি পাথর সরে যাওয়ায় এবং ব্রিজ দেবে যাওয়ায় গত ১০ আগস্ট থেকে পার্বতীপুর থেকে দিনাজপুর, বিরল ও পঞ্চগড় এ দুই রুটে সব ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন রেল কর্তৃপক্ষ। উল্লেখিত রেলপথ দুটির সব ট্রেন পার্বতীপুর পর্যন্ত চলাচল করছে তখন থেকে।

অন্যদিকে, পার্বতীপুর থেকে কুড়িগ্রাম এবং লালমনিরহাট থেকে বুড়িমারি পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে বন্যার কারণে। দিনাজপুর থেকে পঞ্চগড়, লালমনিরহাট থেকে বুড়িমারি ও কুড়িগ্রাম রেলপথের সংস্কার ও ব্রিজ মেরামতের কাজ খুব শীঘ্রই শুরু করা হবে। তবে রুট গুলোর কাজ শেষ করে পুনরায় ট্রেন চালানো সময় সাপেক্ষ বলে তিনি উল্লেখ করেন।  


মন্তব্য