kalerkantho


নাঙ্গলকোটে শ্রেণিকক্ষে অজ্ঞান হয়ে পাঁচ ছাত্রী হাসপাতালে

কুমিল্লা দক্ষিণ প্রতিনিধি    

১৬ আগস্ট, ২০১৭ ১৯:০৪



নাঙ্গলকোটে শ্রেণিকক্ষে অজ্ঞান হয়ে পাঁচ ছাত্রী হাসপাতালে

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের একটি বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে পাঠদান চলাকালে হঠাৎ পাঁচ ছাত্রী অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের উদ্ধার করে নাঙ্গলকোট সদরের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করে।

আজ  বুধবার দুপুরে উপজেলার ধাতিশ্বর আহমেদ দেলোয়ারা উচ্চ বিদ্যালয় এবং কলেজের বিদ্যালয় শাথার অষ্টম শ্রেণির কক্ষে পাঠদান চলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, আজ বুধবার দুপুরে ধাতিশ্বর আহমেদ দেলোয়ারা উচ্চ বিদ্যালয় এবং কলেজের বিদ্যালয় শাখার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পাঠদান করছিলেন ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক জাফর আহমেদ। হঠাৎ ওই শ্রেণিকক্ষে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী মুসফিকা ইসফাত জুড়ি মাথা ঘুরে মাটিতে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যায়। এ সময় অপর কয়েকজন শিক্ষার্থী এ অবস্থা দেখে চিৎকার করে কাঁদতে শুরু করে। এর কিছুক্ষণ পর একই শ্রেণির ছাত্রী নাছরিন সুলতনা নিহা, সায়েমা মজুমদার, সারমিন সুলতনা ও নুরবিন জান্নাতও একইভাবে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরে শিক্ষকরা ওই ছাত্রীদের নাঙ্গলকোট সদরের পাটোয়ারী জেনারেল হসপিটাল নামের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় পরপরই পুরো প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

ধাতিশ্বর আহমেদ দেলোয়ারা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষক ফিরোজ আলম বলেন, "ওই শিক্ষার্থীরা সকালে না খেয়ে বিদ্যালয়ে এসেছিল। এতে তাদের শরীর দুর্বল হয়ে পড়ায় এ ঘটনা ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো.মোনাজের রশিদ জানান, শিক্ষার্থীরা সকালে খালি পেটে কোচিং করার জন্য স্কুলে আসে। সারা দিন থাকতে হয় নাস্তা-পানি খেয়ে। ফলে কয়েকজন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। " তাদেরকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।


মন্তব্য