kalerkantho


সাভারে নারীসহ তিনজনের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)    

১৬ আগস্ট, ২০১৭ ১৭:৫৫



সাভারে নারীসহ তিনজনের লাশ উদ্ধার

সাভারে পৃথক স্থান থেকে এক নারীসহ তিনজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার সকালে সাভারের তালবাগ মহল্লা থেকে একজন ভ্যান চালক, নামাবাজার বংশী নদীর সেতুর নিচ থেকে এক ব্যক্তি ও মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে সাভারের বাড্ডা-ভাটপাড়া স্কুলের কাছে বংশী নদী থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক নারীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, সাভারের তালবাগ এলাকার ভ্যানচালক আমিন মোল্লার মেয়ে তৃষা আক্তার স্থানীয় কলকাকলী শিক্ষালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। গত ২৩ এপ্রিল সে বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। পরে জালেশ্বর এলাকায় শিশুটির খালা লাইলী আক্তারের ভাড়া বাসার আটতলা ভবনের নিচ থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়। মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা মন থেকে মুছতে না পেরে মঙ্গলবার থানায় মামলা করতে চেয়েছিলেন দরিদ্র ভ্যানচালক আমিন মোল্লা (৩৫)। কিন্তু তার স্ত্রী জোসনা, ভাই ভাসান, ছেলে তুষার মোল্লা ও শাশুড়ি নুর বানু গত মঙ্গলবার রাতে তাতে বাঁধ সাধেন।

বিষয়টি নিয়ে রাতে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে রাতের কোনও এক সময় সাভারের তালবাগ এলাকার নিজ বাসায় রহস্যজনক মৃত্যু হয় মামিন মোল্লার। পরে ঘরের আঁড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় আমিন মোল্লাকে দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ আজ বুধবার সকালে ওই বাসা থেকে লাশটি উদ্ধার করে।

আমিন মোল্লা মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার জাফরগঞ্জ গ্রামের বাসিন্দা।

সাভার মডেল থানার ওসি মহসিনুল কাদির জানান, মেয়ে তৃষা হত্যার বিচার চেয়ে মামলা করার জন্য বাবা উদ্যোগ নিলে পারিবারিকভাবে নিষেধ করা হয়। সে কারণেই তিনি রাগে-ক্ষোভে আত্মহত্যা করতে পারেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য তা ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, "শিশু তৃষার মৃত্যুর ময়নাতদন্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে, উচ্চ স্থান থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ মামলা করলে তা গ্রহণ করা হবে। "

এদিকে, নিখোঁজের দুই দিন পর আজ বুধবার সকালে সাভারের নামাবাজার এলাকায় বংশী নদীর সেতুর নিচ থেকে আনিছুর রহমান নামের (২৪) এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত ১৪ আগস্ট বিকেলে আশুলিয়ার নলাম এলাকা থেকে ওই ব্যক্তি নিখোঁজ হন বলে পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ আজ  বুধবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত ওই ব্যক্তি আশুলিয়ার ডেণ্ডাবর এলাকার হালিম মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় একজন গাড়ির মেকানিক ছিলেন।

অপরদিকে, গতকাল মঙ্গলবার রাতে সাভার পৌর এলাকার বাড্ডা-ভাটপাড়া স্কুলের অদূরে বংশী নদীর ঘোড়াদিয়া ঘাট এলাকায় পানিতে ভাসমান অবস্থায় এক নারীর (২২) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার কোনও পরিচয় জানা যায়নি। সাভার মডেল থানার ওসি মহসিনুল কাদির বলেন, "লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য তা ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, নদীতে ডুবে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে। " তবে ওই নারীর নাম পরিচয় কেউ জানাতে পারেনি বলে জানান তিনি।


মন্তব্য