kalerkantho


নড়াইলে এসআই'র বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

নড়াইল প্রতিনিধি    

১৭ জুলাই, ২০১৭ ২০:৫৩



নড়াইলে এসআই'র বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক ও নারীর অসম্মতিতে গর্ভপাত ঘটানোয় ধর্ষণের অভিযোগ এনে  নড়াইলের শেখহাটি পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই আবদুল করিমের (সাময়িক বরখাস্ত) বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন এক নারী। আজ সোমবার নড়াইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল'র (জেলা ও দায়রা জজ) বিচারক বাশার মুন্সীর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ৩ আগস্টের মধ্যে কালিয়া ও নড়াগাতি থানার দায়িত্বে থাকা ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হাসানকে জুডিশিয়াল তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। এর আগে গত জুন মাসে প্রতারণা ও ধর্ষণের শিকার ওই নারীর লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নড়াইলের পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলামের নির্দেশে ওই এসআইকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

মামলার বিবরণে জানা যায়, স্বামীর সঙ্গে ওই নারীর বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ায় তিনি কালিয়া থানার পাশে বাবার বাড়িতে বসবাস করেন। প্রায় সাত মাস আগে কালিয়া থানায় কর্মরত থাকাকালে এসআই আব্দুল করিম তার পরিবারকে অন্যত্র রেখে ওই নারীর বাড়িতে যাওয়া-আসা করতেন। একপর্যায়ে এসআই করিম বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে ওই নারীর সঙ্গে অবৈধভাবে গত বছর ১৬ ডিসেম্বর তার (বাদীর) বাবার বাড়িতে তাকে ধর্ষণ করেন। এতে ওই নারীর গর্ভে সন্তান আসে। এরপর ওই নারী তাকে বিয়ে সম্পন্ন করার কথা বললে বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে ভুক্তভোগী নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে চিকিৎসার নাম করে তাকে ইনজেকশন ও খাওয়ার বড়ির মাধ্যমে  গর্ভপাত ঘটান এসআই করিম। পরে ভুক্তভোগী নারী নড়াইল পুলিশ সুপার ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। প্রাথমিকভাবে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় এসআই করিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

বাদীর পক্ষে জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার নিয়োগপ্রাপ্ত আইনজীবী অ্যাডভোকেট রোকেয়া বেগম বলেন, "অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা এসআই আব্দুল করিম বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নানাভাবে প্ররোচিত করে বাদীকে ধর্ষণ করেন। পরে ধূর্ত ওই পুলিশ কর্মকর্তা বিয়ে করবেন বলে তাকে ঘোরাতে থাকেন, এমনকি মিথ্যা প্রলোভনে বাদীর সরলতার সুযোগে ধর্ষণের প্রতিবাদ করলে উল্টো বাদীকে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছেন। অবশেষে নির্যাতিত নারী আজ সোমবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেছেন। "  


মন্তব্য