kalerkantho


লাকসামে কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার, আটক ৬

কুমিল্লা দক্ষিণ প্রতিনিধি    

২০ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২৮



লাকসামে কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার, আটক ৬

কুমিল্লার লাকসামে আমিনুল হক ওরফে আল-আমিন (২৫) নামে এক কলেজ ছাত্রের হাত বাঁধা ও গলায় ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার বিকেলে লাকসাম পৌর শহরের পশ্চিমগাঁও দরগাহ বাজার এলাকার একটি ছাত্রাবাস থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

আল-আমিন লাকসাম পৌর শহরের পশ্চিমগাঁও সাহাপাড়া এলাকার মৃত আবদুল বারেকের ছেলে। সে লাকসাম নওয়াব ফয়েজুন্নেছা সরকারি কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র হিসেবে অধ্যয়নরত ছিলো। এ ঘটনায় পুলিশ ওই ছাত্রাবাসের মালিকসহ ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওইদিন বিকেলে লাকসাম পৌর শহরের পশ্চিমগাঁও দরগাহ বাজার এলাকার গাজী শোহেদার মাজার জামে মসজিদের মোয়াজ্জেন আজিজুল হকের মালিকানাধিন হক ছাত্রাবাসের ৬নম্বর কক্ষে আমিনুল হকের গলায় ফাঁস ও দু'হাত বাঁধা অবস্থায় ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।  

খবর পেয়ে লাকসাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। এ সময় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সন্দেহভাজন হক ছাত্রাবাসের মালিক আজিজুল হক, তাঁর ৩ ছেলে এবং ছাত্রবাসের ২ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে।  

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে লাকসাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল-মাহফুজ কালের কন্ঠকে জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ বিষয়ে বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এছাড়া পুলিশের তদন্তও চলছে বলে জানান তিনি।


মন্তব্য