kalerkantho


কালকিনিতে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার

মাদারীপুর প্রতিনিধি    

১৬ মার্চ, ২০১৭ ২০:৪৩



কালকিনিতে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার

মাদারীপুর কালকিনি উপজেলার রমজানপুরের জজিরা গ্রামে এক স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছে। এই ঘটনায় স্কুলছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে গতকাল বুধবার কালকিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ, স্থানীয় ও ধর্ষিতার ভাই সূত্রে জানা গেছে, কালকিনি উপজেলার রমজানপুর ইউনিয়নের জজিরা গ্রামের রমজানপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। গত রবিবার রাত ১০টার দিকে বাড়ির উঠোনের কোনায় টয়লেটে যাবার সময় আগে থেকে ওত পেতে থাকা একই গ্রামের সত্তার শিকদারের ছেলে খোকা শিকদার (৩০), মো. শাহজাহানের ছেলে এলাহী (৩০), লালন (৩২) ও শওকত (২৮) গামছা দিয়ে মুখ বেধে ঐ ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায়। বাড়ি থেকে কিছুদুরে বাগানের মধ্যে পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।  

এদিকে বাড়ির লোকজন ঐ ছাত্রীকে খুজতে থাকে। ঘটনার পরের দিন সোমবার সকালে ঐ স্কুলছাত্রীকে রক্তাক্ত ও অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে হাসপাতালে নেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হলে ঐ চার বখাটে তাদের পথরোধ করে।  

দুই দিন ঐ পরিবারের লোকজন বাড়িতে আটতে থাকে। পরে গত মঙ্গলবার রাতের আধারে ঐ ছাত্রীর ভাই তার বোনকে নিয়ে পালিয়ে ঢাকাতে চলে আসে। বর্তমানে ঐ ছাত্রী অসুস্থ থাকায় ঢাকা মেডিক্যেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে।

 
এদিকে তার পরিবার ঐ চার বখাটের হুমকির মধ্যে আছে বলে তার ভাই মোবাইল ফোনে জানিয়েছেন।

এই ঘটনায় ছাত্রীর পরিবার থেকে কালকিনি থানায় একটি অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, আমরা ঐ ছাত্রীর পরিবার থেকে অভিযোগ পেয়েছি। এখন আইনগতভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য