kalerkantho


মাদারীপুরে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক গ্রেপ্তার

মাদারীপুর প্রতিনিধি    

১৬ মার্চ, ২০১৭ ১৮:৫৫



মাদারীপুরে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক গ্রেপ্তার

মাদারীপুরে ৫ বছরের শিশু ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক সোহাগ খানকে (১৬) গ্রেপ্তার করেছে সদর থানার পুলিশ। ঘটনার ৮দিন পর গতকাল বুধবার রাতে সদর উপজেলা ঘটকচর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোহাগ বলাইকান্দি জুনিয়র হাই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র এবং প্রতিবেশি ফারুক খানের ছেলে।  

সোহাগ গ্রেপ্তার হওয়ার পর আসামি পক্ষের লোকজন মামলা তুলে নিতে বাদীর পরিবারকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ধর্ষিতার বাবা।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দুপুরে সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের মধ্য পেয়ারপুর গ্রামের এক ভ্যানচালকের মেয়ে স্থানীয় কুমড়াখালি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্রীকে বাড়ির পাশের খেলার মাঠ থেকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ডেকে নিয়ে যায় সোহাগ। পরে পার্শ্ববর্তী একটি কলাই ক্ষেতে নিয়ে শিশুটিকে জোর করে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।  
স্থানীয়রা শিশুটির কান্নার শব্দ শুনে তাকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়। এ সময় শিশুটি অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। ঐ দিন সন্ধ্যায় শিশুটিকে গুরুতর অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে শিশুটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে ৯ মার্চ শিশুর মা বাদী হয়ে মাদারীপুর সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি  মামলা করেন।

 

শিশুর বাবা বলেন, ধর্ষকের চাচা হেলাল খান আজ বৃহস্পতিবার সকালে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হামলা চালিয়েছে। আমার বড় ভাইকে মারধরও করেছে। এমনকি তারা আমাদের হত্যার হুমকিও দিচ্ছে।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি মো. জিয়াউল মোর্শেদ বলেন, আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পেরেছি। বাকিটা আদালত করবে।  


মন্তব্য