kalerkantho


প্রিজাইডিং অফিসারকে লাঞ্ছিত, পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী কারাগারে

শেরপুর প্রতিনিধি   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৫১



প্রিজাইডিং অফিসারকে লাঞ্ছিত, পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী কারাগারে

শেরপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে হামলা ও প্রিজাইডিং অফিসারকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জাসদ নেতা মো. খলিলুর রহমান খলিলকে (৪০) কারাগারে পাঠানো হয়েছে।  

আজ সোমবার দুপুরে তিনি বিচারিক হাকিমের আদালতে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান।

এ সময় উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ভারপ্রাপ্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম মো. মোমিনুল ইসলাম জামিন আবেদন না-মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। জাসদ নেতা খলিলুর রহমান গাজীর খামার ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ৭ মে সদর উপজেলার গাজীর খামার ইউপি নির্বাচনে জাসদ সমথির্ত মশাল প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী খলিলুর রহমান চকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হামলা করেন। এ সময় তিনি ও তার সমর্থকরা কেন্দ্রে ঢুকে কর্তব্যরত প্রিজাইডিং অফিসার মুহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলামের কাছে সাদা ব্যালট পেপার বই দাবি করেন।  

কিন্ত প্রিসাইডং অফিসার ব্যালট পেপার বই দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে চয়ারম্যান প্রার্থী খলিল তার শার্টের কলার ধরে টেনে হিচড়ে তাকে লাঞ্ছিত করেন। একপর্যায়ে খলিলের লোকজন তার হাতে থাকা একটি মোবাইল ফোনসেটসহ কিছু নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং নির্বাচনী সরঞ্জামাদি ভাংচুর কর করে।  

ওই ঘটনায় প্রিজাইডিং অফিসার মুহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম বাদী হয়ে খলিলুর রহমান ও তার ভাইসহ ১১জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ৩০/৪০ জনকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় অন্যান্যরা জামিনে থাকলেও প্রধান আসামি খলিলুর রহমান এতদিন পলাতক ছিলেন।


মন্তব্য