kalerkantho


ইবির 'এফ' ইউনিটে ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত হাইকোর্টে স্থগিত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ২০:১৭



ইবির 'এফ' ইউনিটে ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত হাইকোর্টে স্থগিত

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভুক্ত 'এফ' ইউনিটে(গণিত ও পরিসংখ্যন) ভর্তি হওয়া ১০০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। ওই ইউনিটে ভর্তি হওয়া ৮৮ জন শিক্ষার্থীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আজ সোমবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই স্থগিতাদেশ দেন।

আদালতে এদিন আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এস এম মনিরুজ্জামান।

পরে এ ব্যাপারে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল সাংবাদিকদের জানান, ইবির 'এফ' ইউনিটে (গণিত ও পরিসংখ্যান) ভর্তি পরীক্ষা গত বছরের ৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। ওই পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উঠলে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট তা বাতিল করে নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্তের আগেই ওই দুটি বিভাগে ১০০ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করা হয়।

তিনি জানান, ভর্তি পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীরা হাইকোর্টে রিট করেন। আদালত সেসব শিক্ষার্থীদের আগামী ১৬ মার্চ অনুষ্ঠেয় নতুন ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ দিতে বলেছেন।

ব্যারিস্টার কাজল আরও জানান, আদালত যেহেতু ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেছেন, তাই এই সময়ের মধ্যে নতুন করে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার আইনগত ভিত্তি নেই।  

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৭ নভেম্বর 'এফ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষা শেষে বিভিন্ন মহল থেকে পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে। অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২৫ জানুয়ারি তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এরপরে তদন্ত প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে গত ৬ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৩৩তম সিন্ডিকেট সভায় 'এফ' ইউনিটে ভর্তি হওয়া ১০০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। একই সঙ্গে আগামী ১৬ মার্চ পুনরায় ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণেরও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়


মন্তব্য