kalerkantho


দুর্যোগ ও বিদ্যুৎ বিভ্রাটেও পর্যটকে মুখর কুয়াকাটা

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি    

১১ মার্চ, ২০১৭ ১৮:৪৯



দুর্যোগ ও বিদ্যুৎ বিভ্রাটেও পর্যটকে মুখর কুয়াকাটা

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া ও টানা ১৭ ঘণ্টা বিদ্যুৎ বিভ্রাটের মধ্যেও হাজার হাজার পর্যটকে মুখর হয়ে উঠেছে পর্যটনকেন্দ্র কুয়াকাটা। গতকাল শুক্রবার ও আজ শনিবার দুই দিনে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে কুয়াকাটায় লাখো পর্যটকের আগমন ঘটেছে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। হোটেল মোটেলের আসন সংকট, বৈরী আবহাওয়া এবং বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে নানা বিড়ম্বনার শিকার হলেও পর্যটকরা কুয়াকাটার সৌন্দর্য্য উপভোগে বিভোর ছিল।

সরেজমিনে দেখা যায়, ঝড়ো হাওয়া ও মেঘাচ্ছন্ন পরিবেশে উত্তাল রয়েছে সমুদ্র। গতকাল শুক্রবার রাত থেকে বিকেল পর্যন্ত বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় নানা বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়েছে প্রত্যেক পর্যটককে। পর্যটকরা দলগতভাবে উত্তাল সমুদ্রের ঢেউয়ের মাঝে গোসলে ব্যস্ত। সৈকতসংলগ্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়।

কুয়াকাটা হোটেল বিচ হ্যাভেনের ব্যবস্থাপক রঞ্জুর আহম্মেদ কালের কণ্ঠকে বলেন, "বৈরী আবহাওয়ার মাঝেও পর্যটকরা কুয়াকাটায় অবস্থান করছেন। তবে শুক্রবার রাত ১২টা থেকে আজ শনিবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত কুয়াকাটায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল। এতে আমাদের সার্বক্ষণিক জেনারেটর সেবা দিতে হয়েছে। তবে যারা এ সেবা দিতে পারেনি সেসব হোটেলের পর্যটকরা হোটেলের অন্ধকার কক্ষে রাত কাটিয়েছেন।

এতকিছুর পরও পর্যটকদের মনে নেই কোনও হতাশা ও কষ্ট।

ঢাকা থেকে সস্ত্রীক কুয়াকাটায় আগত গোলাম হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, "বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কুয়াকাটায় এসেছি। তবে শুক্রবার রাত থেকে শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত কুয়াকাটায় বিদ্যুৎ সরবরাহ ছিল না। আবহাওয়াও ভালো ছিল না। এর জন্য মন খারাপ ছিল। তবে সৈকতে বেড়াতে নামলেই মনটা ভালো হয়ে যেত।

কুয়াকাটায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকার বিষয়ে কলাপাড়া পল্লীবিদ্যুৎ বিভাগের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার মো. আহসান কবির বলেন, জাতীয় গ্রিডের ৩৩ হাজার বিদ্যুৎ  লাইনের শেখ জামাল সেতুসংলগ্ন টাওয়ারের স্কাই তার ছিড়ে যাওয়ায় কুয়াকাটায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল। শনিবার বিকেলে বিচ্ছিন্ন তার মেরামত করার পর বিকেল ৪টার দিকে কুয়াাকটায় বৈদ্যুতিক সংযোগ স্থাপন করা হয়। "

এ ব্যাপারে কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশের এএসপি মো. আব্দুল করিম বলেন, "কুয়াকাটায় বিদ্যুৎ না থাকায় ট্যুরিস্ট পুলিশের একাধিক টিম পর্যটকদের নিরবচ্ছিন্ন সেবা ও  নিরাপত্তায় নিয়োজিত ছিল। "

 


মন্তব্য