kalerkantho


জামালপুরের শরিফপুর বাজারে হামলা-ভাঙচুর, আহত ১০

জামালপুর প্রতিনিধি    

৯ মার্চ, ২০১৭ ১০:৩৭



জামালপুরের শরিফপুর বাজারে হামলা-ভাঙচুর, আহত ১০

জামালপুর সদর উপজেলার শরিফপুর বাজারে কেরাম খেলাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় মির্জাপুর ও বেপারীপাড়া গ্রামের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে  ২২টি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট হয়েছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। গতকাল বুধবার রাতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, শরিফপুর বাজারের রুবেল স্টোরে কেরাম খেলাকে কেন্দ্র করে গত সোমবার বেপারীপাড়া গ্রামের রায়হান, শাকিল, ইসমাইল বোরহান, সোহান, শাওন এবং হানিফের সঙ্গে মির্জাপুর গ্রামের রবিন, বগালী গ্রামের নয়ন এবং ছনকান্দা গ্রামের শাকিলের মধ্যে বিবাদ হয়। ওই বিবাদ মীমাংসার জন্য গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় শরিফপুর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম ‌আলম একটি সালিসি বৈঠকের আয়োজন করেন। সেখানে দুই গ্রামের মাতব্বরসহ শতাধিক মানুষ উপস্থিত হন।

বৈঠকের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে বেপারী গ্রামের যুবকরা শরিফপুর বাজারে থাকা মির্জাপুর গ্রামবাসীর ওপর হামলা চালান। একপর্যায়ে বেপারীপাড়ার যুবকরা মির্জাপুর গ্রামবাসীকে মারধর ও ২২টি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট করে। হামলায় শরিফপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন ফজল ও মির্জাপুর গ্রামের মহসীন, জহুরুল, দেলোয়ার, আবুল কাশেম এবং রনজুসহ ১০ জন আহত হন। এ ছাড়া  কৃষক লীগ নেতা জিন্নাহ ও সুজা মিয়ার দোকানসহ ২২টি দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়।

শরিফপুর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। জামালপুর সদর থানার ওসি নাসিমুল ইসলাম বলেন, "শরিফপুর বাজারে সংঘর্ষের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছি। তবে ক্ষতিগ্রস্তরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। মামলা শেষে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। "

 


মন্তব্য