kalerkantho


রৌমারীতে ধর্ষণের মামলা নিচ্ছে না পুলিশ!

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

৫ মার্চ, ২০১৭ ১৯:৩০



রৌমারীতে ধর্ষণের মামলা নিচ্ছে না পুলিশ!

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ৮ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে নির্যাতিত পরিবারটি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে কিন্তু পুলিশ তিন দিনেও মামলা নিচ্ছে না। উল্টা ধর্ষকের পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ গ্রহণ করেছে। আজ রবিবার সাংবাদিকদের কাছে এমন অভিযোগ করে অসহায় পরিবারটি।

অভিযোগে জানা গেছে, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় হাফিজুর রহমান নামের এক লম্পট ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়ের বাড়িতে অন্য কোনো লোকজন ছিল না। মেয়ের ভাই আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘ওই দিনই রৌমারী থানায় অভিযোগ দায়ের করি। মামলা রেকর্ড করার জন্য পুলিশকে খরচও দেওয়া হয়। আমরা জানতে পেরেছি যে, ধর্ষকের অভিভাবককে থানায় ডেকে নিয়ে মোটা অংকের অর্থ আদায় করে পুলিশ। এরপর পুলিশ মামলা না নিয়ে উল্টা আমগরই গ্রেপ্তার করার হুমকি দিয়েছে। ’

জানা গেছে, উপজেলার চেংটা পাড়া গ্রামের রইচ উদ্দিনের পুত্র হাফিজুর রহমান (২০) এলাকায় একজন বখাটে নামে পরিচিত।

স্কুলে যাওয়ার পথে মেয়েদের উত্যক্ত করে থাকে। নির্যাতিত মেয়ের বাড়িও ওই একই গ্রামে।

এ প্রসঙ্গে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এবি এম সাজেদুল ইসলাম ধর্ষকের পরিবারের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণের কথা অস্বীকার করে বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ’

 

 


মন্তব্য