kalerkantho


বাওয়াছড়ায় স্বেচ্ছাসেবীদের পুনর্মিলনী

ভালো কাজে দেশগড়ার প্রত্যয়

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:৩৩



ভালো কাজে দেশগড়ার প্রত্যয়

অশুভকে দূরে ঠেলে সামনে এগোতে হলে দরকার ভালো কাজ। চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতারা সেই ভালো কাজের মধ্য দিয়ে দেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

গতকাল শুক্রবার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের বাওয়াছড়া লেক এলাকায় মিরসরাইয়ের ৯২টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘মিরসরাই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা’র ব্যানারে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। প্রায় ৪০০ কর্মী একমঞ্চে মিলিত হয়ে ভালো কাজের মাধ্যমে দেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে। এটি তাদের দ্বিতীয় পুনর্মিলনী।

সকাল সাড়ে ৯টায় বিলীয়মান ঐতিহ্যবাহী দেশজ খেলার মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। দাড়িয়াবান্ধা, হা-ডু-ডু, গোল্লাছুট, অন্ধের হাঁড়িভাঙা প্রভৃতি খেলা ও লোক-সাংস্কৃতিক নানা আয়োজন ছিল। দুপুরে হয় বনভোজন। বিকেলে উপজেলার সব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের তরফ থেকে মিরসরাই উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. জসীম উদ্দিনকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। ২০১৬ সালে রাষ্ট্রীয়ভাবে শ্রেষ্ঠ সমাজসেবা কর্মকর্তা নির্বাচিত হন তিনি।

আয়োজক সংস্থার আহ্বায়ক ও শান্তিনীড় সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সংগঠক প্রকৌশলী আশরাফ উদ্দিন সোহেল কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মিরসরাইয়ে শতাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রয়েছে।

তাদের সংস্থার তালিকাভুক্ত সংগঠন ৯২টি। এসবের ৪০টি সমাজসেবা অধিদপ্তরে নিবন্ধিত। সব সংগঠনই সমাজ উন্নয়নে অবদান রাখছে। নেতৃত্বে রয়েছে তরুণরা। ’

প্রকৌশলী আশরাফ বলেন, ‘আমরা সম্মিলিতভাবে আরো বেশি উদ্যমে কাজ করার জন্য এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা শপথ নিয়েছি হাতে হাত রেখে সবাই শুভ কাজে মনোনিবেশ করব। ’

অনুষ্ঠানে সভাপতি, প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি, আমন্ত্রিত অতিথি- এসবের কিছুই ছিল না। সবাই প্রাণের টানে হাজির হয়েছিলেন বাওয়াছড়া লেকের পারের এ অনুষ্ঠানে।

অনুষ্ঠানে কথা বলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. জসীম উদ্দিন, সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) মিরসরাই কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. জামসেদ আলম, মিরসরাই মুক্তি ফাউন্ডেশনের সভাপতি শেখ আতাউর রহমান, বড়তাকিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম ইউসুপ, শান্তিনীড়ের উপদেষ্টা কামরুল ইসলাম ও মির্জা জসিম উদ্দিন, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের উপদেষ্টা নিয়াজ মোর্শেদ ও মিরসরাই ইউনিটের আহ্বায়ক সুভাষ সরকার, দুর্বার প্রগতি সংঘের উপদেষ্টা সোনালী ব্যাংক চট্টগ্রাম অঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক এম এ কাইয়ুম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের কোষাধ্যক্ষ দেবদুলাল ভৌমিক প্রমুখ।

মিরসরাই উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন বলেন, ‘এখানকার সংগঠনগুলোর বেশির ভাগই তরুণদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। আমি অনেক দিন ধরে এসব সংগঠনের সঙ্গে কাজ করছি। তারা একমঞ্চে মিলিত হওয়ায় তাদের সাংগঠনিক শক্তি আরো বাড়বে। সমাজ উন্নয়নে আরো বেশি কাজ করতে পারবে। এটি রাষ্ট্র ও সমাজের জন্য ইতিবাচক একটি দিক। ’


মন্তব্য