kalerkantho


প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত আভিযোগে দোকান সিলগালা

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি    

৩ মার্চ, ২০১৭ ২১:৫০



প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত আভিযোগে দোকান সিলগালা

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় 'এফ' ইউনিটের প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ক্যাম্পাসের একটি ফটোকপির দোকান সিলগালা করা হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান অনুষদ ভবনের পার্শ্ববর্তী 'ক্যাম্পাস লাইব্রেরি'  নামের ফটকোপির দোকানটি সিলগালা করে। বিকেল ৪টার দিকে তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, গত ৭ ডিসেম্বর তৃতীয় শিফটে ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের অন্তর্ভুক্ত 'এফ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শেষে প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে বলে বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ ওঠে। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২৫ জানুয়ারি গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামালকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে প্রশাসন। কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী অনুষদ ভবনের পাশে ক্যাম্পাস লাইব্রেরিটি সিলগালা করেন প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান। অভিযোগ রয়েছে দোকানের মালিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র মনোজিৎ মণ্ডল তার দোকানে পরীক্ষার আগের রাতে প্রশ্নপত্র ফটেকপি করেন। এ ছাড়া ফাঁসকৃত প্রশ্ন দিয়ে মনোজিৎ তার ছোট ভাই হীরামন মণ্ডলকে ওই ইউনিটভুক্ত গণিত বিভাগে ভর্তি করেন। ওই অভিযোগে তার দোকান সিলগালা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কমিটির সদস্যরা। তবে মনোজিৎক আটক করতে পারেনি পুলিশ।

 


মন্তব্য