kalerkantho


সিআরপিতে নানা আয়োজনে 'উন্মুক্ত দিবস' পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)    

৩ মার্চ, ২০১৭ ১৭:৫২



সিআরপিতে নানা আয়োজনে 'উন্মুক্ত দিবস' পালিত

নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সাভারে পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি)- তে আজ শুক্রবার দিনব্যাপী পালিত হয়েছে 'উন্মুক্ত দিবস'। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সমসুযোগ, সমঅংশগ্রহণ, সমঅধিকার এবং মর্যাদাপূর্ণ জীবনযাপনের লক্ষ্যে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক ও এশিয়াটিক সোসাইটির সাবেক সভাপতি ড. হারুনুর রশিদ।

এ ছাড়া সিআরপির প্রতিষ্ঠাতা ও সমন্বয়কারী ড. ভ্যালেরি এ টেইলর ও নির্বাহী পরিচালক মো. শফিকুল ইসলামসহ সিআরপির রোগী, ছাত্র-শিক্ষক, ভলান্টিয়ার, কর্মকর্তা-কর্মচারী, সরকারি-বেসরকারি ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বার্ষিক এ উন্মুক্ত দিবসটি সকালে প্রধান অতিথিকে বরণ করে নেওয়ার মাধ্যমে সূচনা হয়। এরপর তিনি সিআরপির কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ ও  এলাকা পরিদর্শন করেন।

সিআরপির প্রতিষ্ঠাতা ও সমন্বয়কারী ভ্যালেরি টেইলর বলেন, "সিআরপির সেবাসমূহ সম্পর্কে জানতে আগ্রহী সমাজের সর্বস্তরের মানুষের জন্য এ বিশেষ দিনে সিআরপি দিনব্যাপী সবার জন্য উন্মুক্ত থাকে। সমাজের সংশ্লিষ্টতা ছাড়া কোনও প্রতিষ্ঠান কাজ করতে পারে না। তাই যে কোনও অসুস্থ ব্যক্তি তার প্রয়োজন অনুযায়ী সিআরপি থেকে যথাযথ সেবা গ্রহণ করতে পারবেন কিনা- সে সম্পর্কে পরিপূর্ণ ধারণা পান। " মেলায় সিআরপির নিজস্ব সেবা ও তথ্য সংবলিত স্টল থেকে দর্শনার্থীরা সিআরপির সেবা সম্পর্কে ধারণা নেন এবং মেডিক্যাল সার্ভিসেস উইং কর্তৃক আয়োজিত স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।

দিনের দ্বিতীয় পর্যায়ে অ্যাহেড প্রজেক্টের উদ্যোগে পুতুল নাচের মধ্য দিয়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। এ ছাড়া সিআরপির উইলিয়াম ও মেরি টেইলর একীভূত স্কুলের বিশেষ শিশুদের নৃত্য পরিবেশনা, কর্মকর্তাদের হুইল চেয়ার নাচসহ, বিএইচপিআই ও ভোকেশনাল শিক্ষার্থীদের সংগীত পরিবেশনা ও ব্যান্ড শো এ বিশেষ আয়োজনে অন্তর্ভুক্ত ছিল।

সিআরপির নির্বাহী পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, "প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সমসুযোগ, সমঅংশগ্রহণ, সমঅধিকার এবং মর্যাদাপূর্ণ জীবনযাপনের লক্ষ্যে তাদের স্বাস্থ্যসেবা ও পুনর্বাসন নিশ্চিতকল্পে পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি) তার প্রতিষ্ঠালগ্ন ১৯৭৯ সাল থেকেই কাজ করে আসছে। আমরা স্বপ্ন দেখি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের চিকিৎসা, প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসনের মাধ্যমে সমাজের মূল স্রোতধারায় একীভূত করার। "


মন্তব্য