kalerkantho


হামলা চালিয়ে প্রতিপক্ষের ঘর-বাড়ি উচ্ছেদের অভিযোগ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি   

১ মার্চ, ২০১৭ ২০:০৫



হামলা চালিয়ে প্রতিপক্ষের ঘর-বাড়ি উচ্ছেদের অভিযোগ

শরীয়তপুরের সুজনদোয়াল গ্রামে প্রতিপক্ষের বসত বাড়িতে গভীর রাতে হামলা চালিয়ে একটি পরিবারকে উচ্ছেদ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে পালং থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত ভাংচুরের ঘটনায় কোন মামলা হয়নি। অপর পক্ষের দাবি, অন্যের বসতবাড়ি উচ্ছেদ করেনি, নিজেদের জমি দখলমুক্ত করেছে।  

জানা গেছে, শরীয়তপুর সদর উপজেলার ডোমসার ইউনিয়নের সুজনদোয়াল গ্রামের মৃত রবিউল্লাহ মাদবরের ছেলে নুরুল হক মাদবর ও ফজল মাদবরদের সাথে মৃত কাদির মাদবরের ছেলে আলহাজ মাদবর ও সুমন মাদবরের জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে আদালতে মামলা ও একাধিকবার স্থানীয় ভাবে সালিশ দরবার হয়েছে। কোন মিমাংসা না হওয়ায় মঙ্গলবার গভীর রাতে প্রতিপক্ষের লোকজন আলহাজ মাদবর ও সুমন মাদবরের বসত ঘর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়। রাতেই পালং থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত ভাংচুরের ঘটনায় কোন মামলা হয়নি। তবে এ ঘটনায় মামলা করবে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্থরা। এদিকে প্রতিপক্ষের লোকজনের দাবি জোর করে দখল করে রাখা বাড়ি দখল মুক্ত করেছে।

তারা কোন পরিবারকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করেনি।  

নুরুল হক মাদবরের ছেলে আফজাল মাদবর বলেন, জমিজমা নিয়ে অনেকদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছে। আমরা বিদেশে ছিলাম। চার বছর পূর্বে কাদির মাদবর গংরা আমাদের বাড়ি জোর পূর্বক দখল করে নেয়। আদালতের মাধ্যমে বা স্থানীয় ভাবে আমরা কোন সমাধান পাইনি। আমরা কারো জমি বা বাড়ি দখল করিনি। আমাদের জমি দখল মুক্ত করেছি।  

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ খলিলুর রহমান বলেন, জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক পক্ষ অপর পক্ষের বসতঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরির্দশন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করি। এ বিষয়ে এখনও কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।  


মন্তব্য