kalerkantho


আনসার ক্যাম্পের লুট হওয়া ৬ অস্ত্র‍ উদ্ধার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ মার্চ, ২০১৭ ১০:৫৮



আনসার ক্যাম্পের লুট হওয়া ৬ অস্ত্র‍ উদ্ধার

টেকনাফে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের আনসার ক্যাম্পে হামলা চালিয়ে অস্ত্র লুট ও আনসার সদস্য হত্যার ঘটনায় অভিযুক্তদের অন্যতম হোতা নুরুল আলমকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে ৬টি এসএমজি উদ্ধার করেছে র‌্যাব। নাইক্ষ্যংছড়ির তমব্রু পশ্চিমকুল গহীন পাহাড় থেকে এসব উদ্ধার করা হয়। আজ বুধবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব ৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক লে. কমান্ডার আশেকুর রহমান। এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরসংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয় নুরুল আলমকে।

লে. কমান্ডার আশেকুর রহমান জানান, নুরুল আলম মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিক এবং সেখানকার আকিয়াব জেলার মংডু থানার বাসিন্দা। গত বছরের ১৩ মে ভোররাতে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়ার মুচনী এলাকার নিবন্ধিত রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আনসার ক্যাম্পে সশস্ত্র হামলা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। এতে নিহত হন আনসার ক্যাম্পের কমান্ডার মো. আলী হোসেন এবং লুট হয় ১১টি বিভিন্ন ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র ও ৬৭০টি গুলি।

এ ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয় ৩০-৩৫ জনের বিরুদ্ধে আনসার ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মো. আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর অভিযুক্ত বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব ও পুলিশ। সর্বশেষ গত ১০ জানুয়ারি তিনজনকে আটক করে ৫টি অস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব ৭। এ বিষয়ে বিকেলে প্রেস বিফ্রিংয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও র‌্যাবের মহাপরিচালক উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

 


মন্তব্য