kalerkantho


বরগুনার ধর্ষিতার আপত্তিকর ছবিসহ যুবক গ্রেপ্তার

বরগুনা প্রতিনিধি   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৫১



বরগুনার ধর্ষিতার আপত্তিকর ছবিসহ যুবক গ্রেপ্তার

বরগুনার তালতলীতে এক স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে অভিযুক্ত এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত যুবকের নাম আল আমিন (৩০)। সে তালতলীর কলাবাগান এলাকার মৃত আঃ বারেক ডাক্তারের ছেলে। গ্রেপ্তারকৃত আল আমিনের কাছ থেকে নির্যাতিতের আপত্তিকর ছবিসহ একটি মোবাইল ফোন জব্দ করেছে পুলিশ।  

ভুক্তভোগী পরিবার ও তালতলী থানাসূত্রে জানা গেছে, তালতলী শহরের কলাবাগান এলাকার নিজ বাসায় রেখে ওই শিক্ষার্থীর বাবা ও মা গত বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারী) পারিবারিক কারণে বরিশাল যান। ওই দিন গভীর রাতে কৌশলে তাদের ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে ওই শিক্ষার্থীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে আল আমিন ও তার দুই সহযোগী। এসময় ধর্ষণের চিত্রও মোবাইল ফোনে ধারণ করে তারা।  

পরে সে সব ছবি ফাঁস হয়ে গেলে শনিবার গভীর রাতে নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থীর বাবা তালতলী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পরপরই পুলিশ আল আমিনের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। ভুক্তভোগী পরিবারসূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বর্তমানে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় রয়েছে।  

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কমলেশ চন্দ্র হালদার জানান, ধর্ষিতার বাবা শনিবার গভীর রাতে আল আমিন, মেহেদি ও উছেন নামের তিন জনকে আসামী করে তালতলী থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে।

মামলার প্রধান আসামী আলামিনকে ওই দিন রাতেই তার নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থী বর্তমানে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে। তাকে তার বাবা মায়ের জিম্মায় রাখা হয়েছে। একটু সুস্থ হলে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য তাকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে।


মন্তব্য