kalerkantho


ফেনীতে ভাষা দিবসে সীমান্ত হাটে দুই বাংলার মিলনমেলা

ফেনী প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২০:৩৩



ফেনীতে ভাষা দিবসে সীমান্ত হাটে দুই বাংলার মিলনমেলা

মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার দুপুরে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার মোকামিয়া ও ভারতের শ্রীনগর সীমান্ত হাটে দুই বাংলার মিলনমেলা বসে। উভয় দেশের শিল্পীদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপভোগ করেন কয়েক হাজার দর্শক।

সেইসাথে উভয়পারের স্বজনরা মেতে ওঠেন গল্প আর আনন্দ-আড্ডায়।

যৌথ বাজার ব্যাবস্থাপনা কমিটির আয়োজনে ছাগলনাইয়ার মোকামিয়া সীমান্ত হাটে আজ মঙ্গলবার দুপুরে প্রথমে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরি সোহেলের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন লোকসভার এম এল এ (সাব্রুম) রীতাকর মজুমদার, ফেনী-১ আসনের এমপি শিরীন আখতার, ফেনী-২ আসনের এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী, এম এল এ (ত্রিপুরা) জিতেন চৌধুরি, এম এল এ প্রভাত চৌধুরি, ফেনী জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান প্রমূখ।  

অনুষ্ঠানে রীতাকর মজুমদার বলেন, এ সীমান্ত হাটে যে মিলনমেলা শুরু হয়েছে তা দু'দেশের বন্ধনকে আরো দৃঢ় করবে। তিনি মিলনমেলার আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। ফেনী জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান বলেন, ভাবিষ্যতে এ ধরণের উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।  

পরে তিন ঘন্টাব্যাপী সাংস্কৃতিক পর্বে বাংলাদেশের পক্ষে ফেনী শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা গান, আবৃত্তি, নৃত্য পরিবেশন করেন। মঞ্চনাটক 'সূর্যসন্তানদের বাবা' পরিবেশন করে ফেনী থিয়েটার। ভারতের পক্ষে গান পরিবেশন করেন ত্রিপুরার প্রখ্যাত শিল্পী অমর ঘোষ, সুবর্ণা দেবনাথসহ স্থানীয় শিল্পীরা।

নৃত্য পরিবেশন করেন বিলোনীয়া সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী, ত্রিপুরা শিল্পী গোষ্ঠি ও সাব্রুমের শিল্পীরা।  

অনুষ্ঠানে উভয় দেশের প্রায় তিন হাজার অধিবাসী অংশ নেন। অনুষ্ঠানটি ফেনী ও ত্রিপুরার সাংস্কৃতিক কর্মীদেরও মিলনমেয়ায় পরিণত হয়। সভা শুরুর আগে অতিথিরা হাটে নির্মিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা আন্দোলনের মহান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।


মন্তব্য