kalerkantho


ক্যাম্পস এর 'ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্প ২০১৭'

'ক্যাম্পস' এর আয়োজন: বিনামূল্যে চিকিৎসা নিলেন প্রায় ২৫০০ সাধারণ মানুষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:৫৬



'ক্যাম্পস' এর আয়োজন: বিনামূল্যে চিকিৎসা নিলেন প্রায় ২৫০০ সাধারণ মানুষ

ভাষা শহীদদের স্মরণে নিয়মিত বাৎসরিক কর্মসূচির অংশ হিসাবে কিডনি অ্যাওয়ারনেস মনিটরিং অ্যান্ড প্রিভেনশন সোসাইটি (ক্যাম্পস) টাঙ্গাইল জেলার সখিপুর উপজেলার হাতিবান্ধা গ্রামের তালিম ঘর প্রাঙ্গনে প্রতি বছরের মতো এবারও দিনব্যাপি ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্প এবং স্বাস্থ্য শিক্ষামেলার আয়োজন করেছে। এক যুগের অধিক সময় ধরে এই আয়োজন করে আসছে ক্যাম্পস।

বিশাল পরিসরে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প তার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রায় ২৫০০ এর অধিক দরিদ্র সাধারণ এবং চিকিৎসা সুবিধাবঞ্চিত রোগী বিনামূল্যে চিকিৎসা সুবিধা গ্রহণ করেছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াও এসব রোগীদের প্রয়োজনীয় ল্যাব টেষ্ট এবং ঔষধ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়।

দেশের শীর্ষস্থানীয় কিডনি বিশেষজ্ঞ এবং ক্যাম্পস এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম এ সামাদ এর তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপি এই কর্মসূচীর অংশ হিসাবে 'কিডনি রোগ প্রতিরোধে করণীয়'  শীর্ষক একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ছবি: রোগী দেখছেন ক্যাম্পস এর প্রতিষ্ঠাতা ড. এম এ সামাদ

 

ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে আগত রোগীদের ১০ দিন আগে থেকে কিডনি রোগ, ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নির্ণয়ের জন্য প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করা হয় এবং ২১ শে ফেব্রুয়ারির মতো বিশেষ দিনটিতে ওই সকল রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থাপত্র প্রদান করা হয়। এ ছাড়াও ৩০০ শতাধিক চক্ষু রোগীদের চোখের ছানি অপারেশন ও লেন্স প্রতিস্থাপনের জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করা হয়।

ক্যাম্পস এর 'ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্প' এর আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট  মুক্তিযোদ্ধা, ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্প ২০১৭ এর উপদেষ্টা এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের  সাবেক জিএম আব্দুল মালেক মিয়া।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল ৮ আসনের সংসদ সদস্য জনাব অনুপম শাহাজাহান জয়। এ সময় তিনি 'ক্যাম্পস' এর নিয়মিত প্রকাশনা 'প্রয়াস ১৩' এর মোড়ক উম্মোচন করেন।

এ ছাড়াও আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথী হিসাবে ছিলেন লায়ন আলহাজ মোবারক হোসেন, রিজিওনাল চেয়ারম্যান, হেড কোয়ারটার, লায়নস্ ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল; অধ্যাপক ডা. এহতেসামুল হক, বিভাগীয় প্রধান, কিডনি বিভাগ, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ ও হসপিটাল; কাজী ওয়ালীদ ইসলাম, সাবেক উপজেলা, চেয়ারম্যান, সখিপুর উপজেলা ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

 

'ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্প' এর আলোচনা সভায় কিডনি বিষয়ের ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ক্যাম্পস এর সভাপতি ও ল্যাবএইড স্পেশালাইজড হাসপাতাল এর চীফ কনসালটেন্ট ও বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. এম এ সামাদ।

সভায় প্রধান অতিথি বলেন, ডা. সামাদ এর এমন মানবিক আয়োজন নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। সমাজের প্রত্যেকের এমন মানবিক কর্মকাণ্ডে সাধ্যমতো অবদান রাখা উচিত।

সভায় মূখ্য আলোচক অধ্যাপক ডা. এম এ সামাদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপনে 'ক্যাম্পস' গত ১৩ বছর ধরে গ্রামের হত-দরিদ্রদের মাঝে এই স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের আয়োজন করে আসছে। এই ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্পের ১০দিন আগে থেকে 'ক্যাম্পস' ফ্রি কিডনি পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়। ১৩৪৮ জনের কিডনি বিষয়ক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ক্রনিক কিডনি ডিজিজ ষ্টেজ-৩ পাওয়া গেছে ২৩৮ জন রোগীর। ক্রনিক কিডনি ডিজিজ ষ্টেজ-৪ পাওয়া গেছে ৫৬ জন রোগীর। উচ্চ রক্তচাপ পাওয়া গেছে ৪১০ জন রোগীর। ডায়াবেটিস পাওয়া গেছে ৩০০জন রোগীর। প্রস্রাবে এলবোমিন সমস্যা পাওয়া গেছে ২৪০ জন রোগীর।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে প্রায় দুই কোটি লোক কোন না কোন কিডনি রোগে আক্রান্ত। কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতি ঘন্টায় মৃত্যুবরন করছে ৫ জন লোক। সাধারণত ৭৫ ভাগ কিডনি নষ্ট হওয়ার আগে রোগীরা বুঝতেই পারে না যে, তিনি ঘাতক ব্যাধিতে আক্রান্ত। কিডনি যখন বিকল হয়ে যায় তখন বেঁচে থাকার একমাত্র উপায় ডায়ালাইসিস অথবা কিডনি সংযোজন। তাই কিডনি সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে প্রাথমিক অবস্থায় কিডনি রোগের কারণ ও কিডনি রোগ শনাক্ত করে কিডনি বিকল রোগীদের চিকিৎসা প্রদানের লক্ষ্যেই গঠন করা হয় 'ক্যাম্পস'।

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে 'ক্যাম্পস' নানামুখী কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। পরিচালিত কার্যক্রমের মধ্যে এ পর্যন্ত শুধু ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পিং এর মাধ্যমে প্রায় ৬৮ হাজারেরও অধিক রোগীর বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। এ ছাড়াও প্রায় ২৩০০ বৃদ্ধা মা ও বোনদের বিনামূল্যে চোখের ছানী অপারেশন করা হয়। অন্যদিকে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। তিনি মনে করেন জাতীয় দিবসগুলোতে এই স্বাস্থ্য সেবার মাধ্যমে বঞ্চিত মানুষের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়ায় অসহায় মানুষগুলো যেমন উপকৃত হচ্ছে, অন্যদিকে যারা ভাষার জন্য জীবন দিয়েছেন তাদের আত্মা পরিতৃপ্তি পাবে।

ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্পে উপস্থিত বিশেষজ্ঞ চিকিৎকদের মধ্যে ছিলেন, কিডনি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এহতেসামুল হক, ডা. মিহির চন্দ্র দেবনাথ, ডা. বিজয় কান্তি পাল, ডা. মোহাম্মদ খালিদ হাসান, ডা. আতাহার হোসেন, ডা. উশিতা সাহা, ডা. আমিনুর রহমান, ডা. সুমন চন্দ্র রায়, ডা. উম্মে সায়মা, ডা. রিপন কর্মকার, ডা. শেখ আাশিফ মুর্তজা, ডা. সুমি প্রমুখ।

ফ্রি কিডনি ও চক্ষু ক্যাম্পের আলোচনা অনুষ্ঠানে 'ক্যাম্পস' এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজওয়ান সালেহীন স্বাস্থ্য মেলায় আগত সকলকে ধন্যবাদ জানান। সকলের প্রতি ক্যাম্পস এর মানবিক কর্মকাণ্ডগুলোতে সহায়ক ভূমিকা পালনে অনুরোধ জানান।

 


মন্তব্য