kalerkantho


চলন্ত ফেরির ভেতরে ট্রাকচাপায় এক ব্যক্তির মৃত্যু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:৫৯



চলন্ত ফেরির ভেতরে ট্রাকচাপায় এক ব্যক্তির মৃত্যু

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা কপোতী নামক ফেরির ভেতর পণ্যবাহী ট্রাকের চাপায় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আজ রবিবার সকালে নদী পার হওয়ার সময় চলন্ত ফেরির ভেতরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সাদ্দাম হোসেন (২৭) পেশায় একজন অটোরিকশাচালক ছিলেন। তিনি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার খাবুয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা। ময়মনসিংহ থেকে তিনি ফরিদপুরে যাচ্ছিলেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা জানান, আজ সকাল সোয়া ছয়টার দিকে পাটুরিয়া ঘাট থেকে যানবাহন নিয়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে আসে ‘কপোতী’ নামক কে-টাইপ ফেরিটি। ঘাট ছাড়ার কিছুক্ষণ পর সাদ্দাম হোসেন বাস থেকে নেমে ফেরির রেলিংয়ের সামনে দাঁড়ান। এ সময় পেছনে থাকা পণ্যবাহী একটি ট্রাক (ঝিনাইদহ-ট-১১-০০৯৬) সোজা এসে তাঁকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। সংবাদ পেয়ে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ঘাট থানা ও দৌলতদিয়া নৌফাঁড়ি পুলিশ দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ওই ট্রাক ও চালক আমিন শেখকে (৪৫) আটক করে। চালক আমিন শেখ কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার বোট্রিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

নিহত সাদ্দামের সহযাত্রী সুজন মিয়া জানান, ফরিদপুরের বিশ্ব জাকের মঞ্জিল (আটরশির) বার্ষিক ওরসে যাওয়ার জন্য তাঁরা ৪৪ জন একসঙ্গে রওনা দেন। আজ সকাল ছয়টার দিকে তাঁদের বাসটি ফেরিতে ওঠে। ফেরি ছাড়ার পর বাস থেকে নেমে রেলিংয়ের পাশে দাঁড়িয়ে নদীর দিকে তাকিয়ে ছিলেন সাদ্দাম। এ সময় ঢেউয়ের দুলুনিতে ফেরির ভেতরে একটি ট্রাক সামনে এগিয়ে গিয়ে তাঁকে চাপা দেয়। ট্রাকের চাকা কোনো কিছু দিয়ে আটকানো ছিল না।

সাদ্দামের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলেও জানান সুজন মিয়া।

এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহিদুল ইসলাম জানান, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে স্থানীয়দের অনুরোধে নিহত ব্যক্তির সঙ্গে থাকা লোকজনের কাছে মরদেহ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের কোনো অভিযোগ না থাকায় এবং স্থানীয়ভাবে আপস হওয়ায় থানায় মামলা হয়নি। তবে এ দুর্ঘটনার জন্য প্রাথমিকভাবে ঘাতক ট্রাক ও চালককে আটক করা হয়েছে।


মন্তব্য