kalerkantho


রায়পুরে কৃষকের বাড়িতে লুটপাট, আহত ৬

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:৫৩



রায়পুরে কৃষকের বাড়িতে লুটপাট, আহত ৬

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন কৃষক সিরাজ সর্দারের বসতবাড়ি ভাংচুর ও মালামাল লুটপাট করেছে। এ সময় বাধা দিতে গিয়ে নারীসহ ৬ জন আহত হয়। আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার মধ্য উদমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় লুটে নেওয়া বসতঘরের কিছু মালামাল জব্দ করে পুলিশ।  

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়, উপজেলা মধ্য উদমারা গ্রামের কৃষক সিরাজ সর্দারের সাথে একই গ্রামের মাদ্রাসা শিক্ষক মফিজুর রহমানদের ২৭ শতাংশ জমির মালিকানা বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে লক্ষ্মীপুর আদালতে পাল্টাপাল্টি মামলা চলছে। ঘটনার সময় মফিজের ভাই আলাউদ্দিন লোকজন নিয়ে সিরাজের জমিতে গাছ থেকে নারিকেল পাড়াতে আসেন। এ সময় সিরাজ ও তার পরিবারের সদস্যরা বাধা দিতে গেলে তারা লাটি-সোঠা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়।  

এতে সিরাজ সর্দার, তার স্ত্রী বেগম, ছেলে মাঈন উদ্দিন, মোঃ সুমন, মেয়ে পপি ও রহিমা আক্তার আহত হয়।

পরে তারা দলবল নিয়ে সিরাজের বসতঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে ঘরে থাকা মালামাল লুটে নেয়। মফিজুর রহমান হায়দরগঞ্জ তাহেরিয়া ফাযিল মাদ্রাসার এবতেদায়ী বিভাগের প্রধান।  

কৃষক সিরাজ সর্দার বলেন, অতর্কিতভাবে আমাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। এতেও তারা ক্ষান্ত না হয়ে আমার বসতবাড়ীতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে। যাওয়ার সময় তারা ঘরে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ ৪ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। এ বিষয়ে আমি আইনগত ব্যবস্থা নিব।  

বক্তব্য জানতে মাদ্রাসা শিক্ষক মফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তাদের এক সদস্য জানান, তাদের জমি জমি থেকে নারিকেল পাড়তে গেলে সিরাজ ও তার পরিবারের লোকজন বাধা দেয়। এ নিয়ে নিজেদের মধ্যে কাটাকটি হয়েছে। তারা আমাদেরকে মারধর করেছে।  

জানতে চাইলে হায়দরগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বলেন, 'খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে পথিমধ্যে কিছু বসতঘরের মালামাল জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ' 


মন্তব্য