kalerkantho


হিলিতে গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৬:২৬



হিলিতে গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যা

দিনাজপুরদিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার হিলিতে গাছের পাতা কুড়ানোর সময় বুলবুলি বেগম (৩৫) নামে ৩ সন্তানের এক জননীকে ধর্ষণের পর গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শরিফুল ইসলাম (১৯) নামের এক যুবককে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে হিলির নয়ানগর গ্রামে ঘটনা ঘটে। নিহত বুলবুলি বেগম উপজেলার নয়ানগর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী।

হাকিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সবুর জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শরিফুল ইসলাম নামের এক যুবককে আটক করে নিয়ে থানায় আসে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শরিফুল ইসলাম জানায়, মাঠে একা পেয়ে ওই গৃতবধূকে সে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় বাঁধা দিলে সে ওড়না দিয়ে গলায় পেচিয়ে তাকে হত্যা করে। পরে লাশ জঙ্গলের মধ্যে নিয়ে যাওয়ার সময় মাঠে থাকা এক ব্যক্তি তাকে দেখে ফেললে সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপার্দ করে।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় অন্য কেউ জড়িত আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ময়নাতদন্ত ও ভিসেরা রিপোর্ট পাওয়ার পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন ওসি আব্দুস সবুর।

হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার আহসান আলি সরকার জানান, দুপুরে উপজেলার নয়ানগর গ্রামের এক যুবক ওই গৃহবধূকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসেন। এ সময় রোগীকে দেখার পর ও তার ইসিজি সম্পূর্ন করার পরে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। রোগীর গলায় ও ডান হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।


মন্তব্য