kalerkantho


খুলনায় জামাতা খুন, শাশুড়িসহ আটক ৬

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১২:২২



খুলনায় জামাতা খুন, শাশুড়িসহ আটক ৬

খুলনার রূপসা উপজেলায় মেয়ের জামাত‍া খায়রুল ইসলাম পরাগকে (২৫) শ্বশুরবাড়ির লোকজন খুন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শাশুড়িসহ ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলার তিলক গ্রামের তরফদার বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে পরাগের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরাগ রূপসা উপজেলার দক্ষিণ খাজাডাঙ্গা গ্রামের খুতুবুর সরদারের ছেলে। তিনি পোলট্রি ফিড ব্যবসায়ী ছিলেন। আটক খায়রুলের স্ত্রী তামান্না ও তার শাশুড়ি খুনের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। আটকরা হলেন পরাগের স্ত্রী তামান্না, শাশুড়ি, মামা শ্বশুর, তামান্নার প্রেমিক শাকিলসহ মোট ছয়জন। বাকিদের নাম জানা যায়নি।

নিহতের চাচাতো ভাই সরদার কামাল হোসেন জানান, তিলক গ্রামের মৃত মুরাদ শেখের মেয়ে তামান্নার সঙ্গে পরাগের চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি বিয়ে হয়। রবিবার রাত ১০টার দিকে পরাগ শাশুড়ির ফোন পেয়ে নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলে রওনা হন। এরপর থেকে তার মোবাইলফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

তার সঙ্গে প্রায় দুই লাখ টাকাও ছিল। রাত সাড়ে ১২টার দিকে শ্বশুরবাড়িতে যোগাযোগ করলে সেখানে যায়নি বলে তারা জান‍ান।

রূপসা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, পরাগের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে হত্যার অভিযোগে তার স্ত্রী তামান্না, শাশুড়ি, মামা শ্বশুর, তামান্নার প্রেমিক শাকিলসহ ছয়জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। ওসি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শাশুড়ি, স্ত্রী ও মামা শ্বশুর হত্যার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন।

 


মন্তব্য